রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৪:৪৫ অপরাহ্ন

ইছামতি নদীর উপর ছোট ছোট ব্রিজ পানি প্রবাহের অন্তরায়- জেলা প্রশাসক

 

স্টাফ রিপোর্টারঃ রাজশাহী বিভাগের শ্রেষ্ঠ পাবনা জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন বলেছেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মেনুফেস্টুনে ইছামতি নদী উদ্ধারের ঘোষণা থাকা দরকার।

ইছামতি নদীর উপর ছোট ছোট ব্রিজ নদীতে পানি প্রবাহের অন্তরায়। ‘ইছামতি নদী পুনরুজ্জীবনের জন্য পরিবেশগত ও সামাজিক প্রভাব বিশ্লেষণসহ সম্ভাব্যতা সমীক্ষা’শীর্ষক সমীক্ষা প্রকল্পের চলমান কার্যাবলীর অগ্রগতি এবং ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনার উপর মতবিনিময় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড এর আয়োজনে আজ বৃহস্পতিবার (০৮ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় পাবনা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, ইছামতি নদী নর্দমায় পরিণত হওয়ায় যে ক্ষতি হয়েছে এবং হচ্ছে তা হয়তো টাকা দিয়ে পুরণ করা যাবেনা।

পৌরসভার মেয়রের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কোন মিটিংয়ে পৌর মেয়রের দেখা মেলে না। পৌরসভার সমস্যা সমাধানে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হলে অবশ্যই তাকে মিটিংয়ে থাকতে হবে।

ইছামতি নদীর পানি প্রবাহের অন্যতম বাধা হিসেবে তিনি জানান, রূপপুর প্রকল্পের কাছে ইছামতি নদীতে পানি ঢোকার রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এ চ্যানেল খোলা না হলে ইছামতি নদীতে পানি আসবে কোথা থেকে এমন প্রশ্ন রাখেন তিনি।

ইছামতি নদীতে পানি প্রবাহ এবং অবৈধ দখল উচ্ছেদ করতে হলে পাবনাবাসীর ঐক্য হওয়া জরুরী বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

তিনি এও বলেন, আমি হয়তো থাকবো না, সরকারি কর্মকর্তাদের অনেকেই বদলী হয়ে চলে যাবেন। এটা পাবনাবাসীর আন্তরিকতাই পারে ইছামতি নদী পূর্বের স্থানে ফিরে যেতে।

বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড রাজশাহী উত্তর পশ্চিমাঞ্চল প্রধান প্রকৌশলী মহম্মদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পাবনা তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এস.এম.শহিদুল ইসলাম ও পাবনার বিশিষ্ট রাজনৈতিক নেতা মোস্তাক আহম্মেদ সুইট।

সমীক্ষা প্রকল্পের আওতায় ইছামতি নদী পুনরুজ্জীবনের সম্ভাব্য উপায়সমূহ এর উপর উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউট এর অধ্যাপক ড. আনিসুল হক।

এবং সমীক্ষা প্রকল্পের প্রেক্ষাপটের উপর উপস্থাপনা করেন একই ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. রেজাউর রহমান।

২০১৩ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত ইছামতির বাস্তব চিত্র উপস্থাপন করেন পাবনার বিশিষ্ট রাজনৈতিক নেতা মোস্তাক আহমেদ সুইট।

স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড ঢাকার পরিচালক (পরিকল্পনা-১) ফজলুর রশিদ।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলী রেজাউল করিম, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী তবিবুর রহমান, পাবিপ্রবি পরিচালক ড. নাজমূল ইসলাম, ইছামতি নদী উদ্ধার আন্দোলন পাবনার আহ্বায়ক এস.এম.মাহবুব আলম ও সদস্য হাবিবুর রহমান,

বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ এ কে মির্জা শহিদুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চন্দন কুমার ঠাকুর, পৌর কাউন্সিলর ফরিদুল ইসলাম ডালু, মালঞ্চি ইউপি চেয়ারম্যান আঃ আলিম প্রমুখ।

ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড পাবনার নির্বাহী প্রকৌশলী জহুরুল ইসলাম।

কর্মশালায় জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী আতিয়ুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) শাফিউল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব) রুহুল অমিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নুল আবেদীন, জনস্বস্থ্য নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান হাবিব, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা আঃ রউফ,

বিএডিসির জেলা কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন, বাপাউবো পাবনা নির্বাহী প্রকৌশলী ( যান্ত্রিক) আহমুদুল্লাহ, সহকারী পরিচালক মোশাররফ হোসেন, চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এবিএম ফজলুর রহমান, ড. সুজিত কুমার, সমাজ বিজ্ঞানি আবুল কাশেম, কাউন্সিলর মো. কালু, আঃ মাজেদ, হারুন অর রশিদ, বিশ্বজিৎ, মাহফুজুর রহমান, ক্যাপঃ আজিজুর রহমান, আতিকুর রহমান, গয়েশপুর ইউপি চেয়ারম্যান আঃ রাজ্জাক, মাছরাঙা টিভির জেলা প্রতিনিধি শহিদুল ইসলাম রিজুসহ বিভিন্ন শ্রেণির মানুষ কর্মশালায় অংশ নেন।

 

 


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!