সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

কনের সাজ

কনের পরিপাটি থাকতে হয় বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে। হলুদসন্ধ্যা, বিয়ে আর বৌভাত, অন্তত এই তিন দিন কনেকে সাজতে হয় জমকালো সাজে। সব কনেই নিজেকে দেখতে চান অন্যদের থেকে ভিন্নভাবে। সাজ এবং পোশাক চান আনকোরা। উজ্জ্বলা থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত দশ জন রূপসজ্জায় পারদর্শী দশজন কনেকে সাজিয়ে তুলেছেন ১০ রকম সাজে। গ্রন্থনা করেছেন সারাহ্‌ দীনা

বিয়েতে সবকিছু ছাপিয়ে সব থেকে বেশি মনোযোগ যার দিকে থাকে সবার, সে হচ্ছে বিয়ের কনে। তার সাজ, পোশাক, অলঙ্কার নিয়ে দিকে দিকে হয় চর্চা। আবার বেশিরভাগ মেয়ের মনেই বিয়ে নিয়ে থাকে স্বপ্ন। নিজেকে বউ সাজলে কেমন দেখাবে তাই নিয়ে কম জল্পনা-কল্পনা চলে না মনে মনে। সেই কিশোরী বয়সেই মায়ের শাড়ি এলোমেলো জড়িয়ে আয়নার সামনে দাঁড়ানোর স্মৃতি আছে অনেকেরই। বিয়ের দিন সব মেয়েই চায় সবার থেকে অনন্য রূপে সাজতে। বিয়ের সাজ নিয়ে হাজারো জল্পনা-কল্পনা থাকলেও সিদ্ধান্তে পৌঁছানো কঠিন হয়ে ওঠে কনের জন্য। আর বিয়ে মানে অন্তত তিন থেকে চার দিনের অনুষ্ঠান। তাই একই রকম সাজে নয়, বরং ভিন্নতা দরকার হয় প্রতিটি আয়োজনেই। দশ ধরনের মেকআপ তুলে আনা হয়েছে আজকের আয়োজনে।

বিয়ের সাজ নিয়ে অনেক বছর ধরে কাজ করছেন রূপ বিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন। অনেক মেয়েকেই সাজিয়ে তুলেছেন টুকটুকে বউ। প্রশিক্ষণের প্ল্যাটফর্ম উজ্জ্বলাতে রূপসজ্জা বিষয়ে পেশাগত শিক্ষা দিয়েছেন নারীদের। উজ্জ্বলার প্রশিক্ষিত সব প্রশিক্ষণার্থীকে একেকজন উজ্জ্বলা হিসেবে অভিহিত করে উজ্জ্বলার ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফরোজা পারভীন বলেন, ‘আমরা চাই উজ্জলা থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে চারদিকে উজ্জ্বল করে তুলুক প্রশিক্ষণার্থীরা। সাজিয়ে তুলুক অসংখ্য মেয়েকে দক্ষতা আর পেশাদারিত্বের সঙ্গে।’

বিয়ের অনুষ্ঠান সাধারণত শুরু হয়ে থাকে পাকা দেখা থেকে। এরপর হলুদ, বিয়ে আর বৌভাতে তার শেষ। আধুনিকায়নের যুগে তার সঙ্গে যোগ হয়েছে আরও বেশ কয়েকটি আয়োজন। এর মাঝে আছে আংটি পরানো, মেহেদি এবং সঙ্গীত। বিয়ের কনে মাত্রই প্রতিটি আয়োজনে সেজে নিতে চান ভিন্ন ভাবে। সাজ নির্ভর করে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর। একেকটি আলাদা আলাদা উৎসবের মূল ভাবনা সব থেকে বেশি প্রভাব তৈরি করে সাজে। তার বাইরেও রয়েছে বেশ কয়েকটি বিষয়, যা এড়িয়ে যাওয়া যাবে না কোনোভাবেই। কনের মুখের আদল সাজে অনেক ধরনের প্রভাব তৈরি করে। কনের মুখের আকারের কথা চিন্তা করে তবেই নিতে হবে সাজের সিদ্ধান্ত। এ কারণে বিয়ের মেকআপে বসার তিন মাস আগেই কথা বলে নিতে পারেন রূপ বিশেষজ্ঞের সঙ্গে। সেই অনুযায়ী পরিকল্পনা করলে সাজে ভুলের পরিমাণ কমে আসবে। সঙ্গে সঙ্গে গহনা এবং পোশাকের বিষয়েও নিতে পারেন পেশাদার দক্ষ মতামত। তাহলে নিজের জন্য উপযুক্ত পোশাক খুঁজে নিতে পারবেন অনায়াসেই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৩:৪১
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:১১
    যোহরদুপুর ১১:৫৯
    আছরবিকাল ১৬:৩৯
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:৪৭
    এশা রাত ২০:১৭
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!