বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১১:৩৮ অপরাহ্ন

ক্ষুদ্রঋণে স্বপ্ন গড়ি

ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগের শুরুতেই অনুমতি নিয়ে নতুন ব্যবসা শুরু করা উচিত। এতে আইনি ঝামেলায় পড়তে হয় না। ব্যবসা শুরু করার জন্য নির্ধারিত ফি প্রদান করে সিটি করপোরেশন বা পৌর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতিপত্র সংগ্রহ করতে হবে। যাকে ট্রেড লাইসেন্স বলা হয়। ট্রেড লাইসেন্স ঋণ পাওয়ার জন্য প্রাথমিক শর্ত

স্বপ্ন, বিশ্বাস আর পরিশ্রম- এই তিনের সমন্বয়ে গড়ে উঠতে পারে আপনার স্বপ্নের ব্যবসার প্রতিফলন, যা এগিয়ে দিতে পারে আপনার ক্যারিয়ার। ছোট আকারের ব্যবসা দিয়ে শুরু করে, পরবর্তী সময়ে বিশ্বের নাম করা প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে এমন উদাহরণ আমাদের সামনে প্রচুর রয়েছে। কারও অধীনে চাকরি না করে যদি নিজেই উদ্যোক্তা হতে চান, তবে ক্ষুদ্রঋণ আপনাকে এগিয়ে দেবে অনেকখানি।

প্রথমেই আপনি কী ধরনের ব্যবসা শুরু করতে চান, তা নিয়ে আপনার চিন্তা স্থির করুন। আপনার পণ্যের বাজারে চাহিদা কেমন। পণ্যের ক্রেতাকে তাদের চাহিদা নিয়ে ভাবতে হবে। কোন পণ্য বা সেবা নিয়ে বাজারে উপস্থাপন করবেন- পাইকারি বাজারে যা পাওয়া যায়, তাই উপস্থাপন করবেন? নাকি নতুন উপযোগিতা সৃষ্টি করে বাজারে আনবেন- তা নির্ধারণ করুন।

ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগ শুরুতেই অনুমতি নিয়ে নতুন ব্যবসা শুরু করা উচিত। এতে আইনি ঝামেলায় পড়তে হয় না। ব্যবসা শুরু করার জন্য নির্ধারিত ফি প্রদান করে সিটি করপোরেশন বা পৌর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতিপত্র সংগ্রহ করতে হবে। যাকে ট্রেড লাইসেন্স বলা হয়। ট্রেড লাইসেন্স ঋণ পাওয়ার জন্য প্রাথমিক শর্ত। এ ক্ষেত্রে আপনি কোনো অভিজ্ঞ ব্যক্তির কাছ থেকে পরামর্শ নিতে পারেন।

আপনার পছন্দমতো কোনো ব্যাংকে ব্যবসার একটি হিসাব চালু করতে হবে। আপনার ব্যবসার ধরন যেমনই হোক না কেন, ব্যবসায়ের হিসাবটি আপনার ব্যক্তিগত হিসাব থেকে আলাদা হবে। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা তাদের ব্যবসার হিসাবটি ব্যক্তিগত হিসাব থেকে আলাদা রাখেন না, যা একটি বড় ভুল।

ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের কাছ থেকে প্রতিনিয়ত যে অভিযোগ শোনা যায়, তা হচ্ছে- ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠান তাদের ঋণ দেয় না। এতে অর্থ সংকটে পড়ে অনেক ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোগ শুরুতেই শেষ হয়ে যাচ্ছে। ব্যাংক একটি লাভজনক ও মুনাফাপ্রত্যাশী প্রতিষ্ঠান। ভালো গ্রাহকের সন্ধান তারা নিজেদের তাগিদে করে থাকে। উদ্দেশ্য একটাই, ভালো এবং নতুন গ্রাহক পাওয়া। ব্যাংকের মূল কাজ আমানত নেওয়া ও ঋণ দেওয়া। গ্রাহক ঋণ নেবেন এবং তার আয় থেকে ঋণ শোধ করবেন। ব্যাংক নিজে সরাসরি ব্যবসা করতে পারে না। ব্যাংক কোম্পানি আইন ১৯৯৪-এ অনুমোদিত ব্যবসা ব্যতীত অন্য ব্যবসায় ব্যাংক নিয়োজিত হতে পারে না। ব্যাংক ঋণ দেওয়ার আগে কয়েকটি বিষয় দেখে এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে- ব্যবসায় উদ্যোক্তার আগ্রহ, উদ্যোক্তা ব্যবসা বোঝেন কি-না, বিনিয়োগকৃত ব্যবসার ভবিষ্যৎ, আর্থিক ব্যবস্থাপনা ও আর্থিক হিসাব বিবরণী, লেনদেনে সততা, ব্যাংককে ফাঁকি না দেওয়া। ব্যাংক যেসব কাগজপত্র চায়, অনেক গ্রাহকের তা থাকে না। সে ক্ষেত্রে ব্যাংকের কাছে এটি স্বীকার করা উত্তম। ব্যাংক দেখবে বিকল্প কোনো কাগজপত্র দিয়ে কাজ চলে কি-না। না হয় জানিয়ে দেবে, ঋণ দেওয়া যাবে না অথবা কিছুদিন পর নেওয়ার পরামর্শও দিতে পারে।

এবার প্রচার-প্রচারণার পালা। সামাজিক যোগাযোগ মধ্যম ফেসবুক, গুগলসহ অন্যান্য কম্পিউটার অ্যাপস এবং বিভিন্ন উদ্ভাবনী উপায়ে বিনা খরচে আপনি আপনার পণ্যের পরিচিতি বাড়াতে পারেন। আপনি আপনার এলাকার ছোট অন্যসব ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আপনার ব্যবসার পণ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে কথা বলতে পারেন এবং জেনে নিতে পারেন তাদের কোন কোন বিষয়গুলো আপনার কাজে আসতে পারে।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৪:৩৯
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:৫৬
    যোহরদুপুর ১১:৪৪
    আছরবিকাল ১৫:৫৪
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৭:৩১
    এশা রাত ১৯:০১
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!