বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ০৭:০০ পূর্বাহ্ন

খালেদার প্যারোলের বিনিময়ে শপথ

গত একাদশ জাতীয় নির্বাচনে বিজয়ী হওয়া বিএনপির নির্বাচনী জোট ঐক্যফ্রন্টের এমপিদের শপথ গ্রহণ নিয়ে ধোঁয়াশা যেনো কাটছেইনা। প্রসঙ্গত গত জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের অধিকাংশ প্রার্থী ভরাডুবির শিকার হলেও ঐক্যফ্রন্ট থেকে ৮ জন প্রার্থী বিভিন্ন আসনে জয় পেয়েছেন। নির্বাচনের পর কারচুপির অভিযোগ এনে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হলেও ঐক্যফ্রন্টের প্রধান শরিক গণফোরামের দুজন সংসদ সসদ্য ইতোমধ্যে শপথ গ্রহণ করেছেন। এরপর থেকেই মূলত বিএনপি থেকে বিজয়ী বাকি ৬ জন সংসদ সদস্য শপথ নেওয়ার ইঙ্গিত দেয়া শুরু করেন এবং বিনিময়ে দলের পক্ষ থেকে খালেদার প্যারোলে মুক্তি চাওয়া হতে পারে গুঞ্জন ওঠেছে।

রাজনীতিতে হঠাৎ করেই আলোচনার কেন্দ্রে চলে আসছে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তির বিষয়টি। পর্দার আড়ালে খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে সরকারের সঙ্গে বিএনপি নেতাদের সমঝোতার আলোচনা হচ্ছে, এমন খবর বেশ কয়েকদিন ধরেই বিভিন্ন মাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে বিএনপির নির্বাচিত ৬ জন এমপি শপথ নিয়ে সংসদে যাওয়ার শর্তে সরকার খালেদা জিয়াকে প্যারোলে বা জামিনে মুক্তি দিতে পারে। যদিও বিএনপির একটি পক্ষ থেকে প্যারোলের বিষয়টিকে বার বার প্রত্যাখ্যান করা হচ্ছে।

আরেকটি সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির নির্বাচিত এমপিরাও সংসদে যেতে রাজি। তারাও চান খালেদা জিয়ার মুক্তির বিনিময়ে সংসদে যেতে। আর এক্ষেত্রে পেছন থেকে কলকাঠি নাড়ছেন জাতীয় ঐক্যের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। যদিও বিএনপি নেতারা এসব কথাকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন শীর্ষ নেতা বলেছেন, ‘বেগম জিয়াকে অন্তত জামিনে মুক্তি দিলে আমরা সংসদে যাবার বিষয়টি বিবেচনা করতে পারি’। একাধিক সূত্র বলেছে, ’শপথ গ্রহণ এবং সংসদে যোগদান নিয়ে একটি দুতাবাসের মধ্যস্থতায় সরকার এবং বিএনপি সমঝোতার চেষ্টা করেছে।’ বিএনপির একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নির্বাচনের পরপরই বেগম জিয়ার মামলাগুলো সচল হওয়ার তারা উদ্বিগ্ন।

পাশাপাশি দলের মধ্যে দেখা দিচ্ছে নানা ধরনের সংকট। কেউ কেউ দল ছাড়ছেন। কেউ নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ছেন। দলীয় সিদ্ধান্ত না মেনে উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিয়ে তৃণমূলের শতাধিক নেতা দল থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন। ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনকে প্রত্যাখ্যান করে, নতুন নির্বাচন দাবি করার পর বিএনপি আবার এখন সংসদে গেলে কর্মী-সমর্থকদের প্রতিক্রিয়া কী হবে তাই দেখার অপেক্ষা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৩:৪১
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:১২
    যোহরদুপুর ১২:০০
    আছরবিকাল ১৬:৪০
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:৪৮
    এশা রাত ২০:১৮
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!