সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৬:২৫ অপরাহ্ন

গরীব ও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের পাশে “আভাস”

 

তরুণরা যখন মাদক, ইভটিজিং আর নানান অসামাজিক কার্যকলাপ নিয়ে ব্যস্ত, ঠিক তখনি পাবনা সদর উপজেলার কোলাদী গ্রামের কিছু তরুণ গড়ে তোলে “আভাস” নামের একটা সামাজিক সেচ্ছাসেবী সংগঠন, যার অর্থ- আমরা ভালোবাসি সবাইকে।

গ্রামের গরীব ও সুবিধাবঞ্চিত মানুষদের মান উন্নয়নে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে এই সংগঠনটি।

বরাবরের ন্যায় এবারও ঈদের আনন্দ সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে আয়োজন করে “আভাস- ঈদ খুশি প্রকল্প ২০১৮”, যার মাধ্যমে প্রায় ২৫ জন গরীব শিশুদের মাঝে ঈদের জামাকাপড় এবং খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে আভাস।

২৫ জন বাচ্চাদের মধ্যে ১১ জন ছিল ছেলে এবং বাকীরা ছিল মেয়ে। ছেলেদের সবার হাতে ঈদের পাঞ্জাবি এবং মেয়েদের হাতে ঈদের জামা তুলে দেয়া হয়।

সাথে পরিবারের সবার জন্য দেয়া হয় দুই প্যাকেট করে সেমাই এবং আধা কেজি করে চিনি।
অনুষ্ঠান শেষে সুবিধাবঞ্চিত বাচাগুলোর মাঝে মিষ্টি বিতরণ করায় উৎফুল্লতা বেড়ে ওঠে আরও কয়েক গুন।

গত ২১ আগস্ট কোলাদী উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানের মূল সমন্বয়কারী ছিলেন সানজিদুল ইসলাম কাওসার এবং আয়োজক কমিটির অন্যান্যরা হলেন- সৈকত, রবিন, টনি, জাহিদ, শাওন, সোহাগ, সবুজ, আসাদ, সুজন এবং আরও অনেকে। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মানারাত স্কুলের শিক্ষক মাহমুদুল হাসান এবং এলাকার কিছু বিশেষ ব্যক্তিত্ব।

উল্লেখ্য যে, আভাসের একটি সুশৃঙ্খল গঠনতন্ত্র বিদ্যমান। আভাসের বিশেষ কিছু প্রকল্পের মধ্যে ঈদ খুশি প্রকল্প, শিক্ষা প্রকল্প, ধর্ম বিষয়ক প্রকল্প অন্যতম।

এসকল প্রকল্পের প্রধান, সহকারী প্রধান, সদস্য, ভলান্টিয়ার এবং একজন মূল সমন্বয়কারী নিয়েই আভাস গঠিত। যারা নিজেদের মধ্যে থেকে মাসিক চাঁদা উঠিয়ে এবং কোনো ইভেন্টের পূর্বে এলাকার কতিপয় ডোনরদের কাছে থেকে অর্থ সহায়তা নিয়ে সকল কার্য পরিচালনা করে।

মানুষের আর্থিক এবং সামাজিক সাহায্যে চলা এই সামাজিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি সমাজের সকল অসামাঞ্জস্যতা এবং বঞ্চনা থেকে বের হয়ে এসে সবার জন্য কাজ করতে এবং এগিয়ে যেতে চায় অনেক দূর। সেজন্য আপনাদের সকলের সাহায্য, মতামত, পরামর্শ এবং দোয়াপ্রার্থী।

মোঃ সানজিদুল ইসলাম, প্রধান সমন্বয়কারী, আভাস

 

 


বিজয় নিশান উড়ছে ঐ…

© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!