রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৪:২৬ অপরাহ্ন

চাচা কী খাবেন জেনে এসো :প্রধানমন্ত্রী

১ নভেম্বর সংলাপের জন্য জাতীয় ঐক্য এবং গনফোরামের সভাপতি ডঃ কামাল হোসেনকে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ।আজ মঙ্গলবার সকালে আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ ডঃ কামাল হোসেনের কাছে আমন্ত্রণের চিঠি পৌঁছে দেন ।

এই উদ্দেশ্যে গতকাল সোমবার রাতেই আবদুস সোবহান গোলাপকে ডেকে নেন প্রধানমন্ত্রী। গোলাপের হাতে চিঠি দিয়ে বলেন, সকাল বেলাই যেন এই চিঠি ড. কামাল হোসেনের বাসায় পৌঁছে দেওয়া হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তাঁকে বলেন, ‘চাচার কাছে জানতে চাইবে উনি কী খাবেন।’

আজ সকাল সাড়ে ৭টায় আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ ড. কামাল হোসেনের বেইলী রোডের বাসায় যান এবং বাসায় গিয়ে তিনি ড. কামালের কাছে প্রধানমন্ত্রীর চিঠিটি হস্তান্তর করেন। এরপর প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক তিনি ড. কামাল হোসেনকে বলেন, আগামী বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী আপনাকে নৈশভোজ করতে বলেছেন এবং জানতে চেয়ে আপনি কী খেতে চান আর আপনারা কতজন আসবেন। ড. কামাল হোসেন এসময় গোলাপকে বলেন, ‘এ বিষয়ে মন্টু (গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসীন মন্টু) জানিয়ে দেবে।’

উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত থাকাকালীন সময়ে ড. কামাল হোসেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বেশ ঘনিষ্ঠজন ছিলেন পালন করেছেন আইনমন্ত্রীর দায়িত্ব, পরে ড. কামালকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্বও অর্পণ করেন বঙ্গবন্ধু। সেই সূত্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁকে চাচা বলে ডাকতেন।

পরবর্তীতে ১৯৮১ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের দায়িত্ব নেন। এরপর দলীয় সভাপতি হিসেবে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর সামরিক শাসকদের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে তিনি যখন প্রথমবারের মতো দেশে ফিরে আসেন তখনও শেখ হাসিনা ড. কামাল হোসেনকে চাচা বলেই ডাকতেন। পরবর্তীতে অনেক ঘটনা-দুর্ঘটনায় আওয়ামী লীগের সঙ্গে ড. কামাল হোসেনের দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছে কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর সম্মান এবং শ্রদ্ধার জায়গা থেকে কখনোই সরে আসেননি।

বর্তমানে আওয়ামী লীগ বিরোধী জোটের নেতা হওয়ার পরও ড. কামালকে সসম্মানে আমন্ত্রণ জানানোর মধ্য দিয়ে শেখ হাসিনা আবারও তাঁর ব্যক্তিগত ও রাজনৈতিক শিষ্টাচারের বহিঃপ্রকাশ ঘটালেন।


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!