শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯, ০২:৪১ অপরাহ্ন

চাটমোহরে স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করলেন ইউএনও

 

চাটমোহর প্রতিনিধি : চাটমোহরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার অসীম কুমারের হস্তক্ষেপে রূপা রানী দাস নামে দশম শ্রেণিপড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে পৌর শহরের নতুনবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্কুলছাত্রী রূপা বগুড়া জেলার শেরপুর পৌর শহরের কর্মকারপাড়া মহল্লার শ্যামল চন্দ্র দাসের মেয়ে। সে ছোটবেলা থেকেই চাটমোহরে নানা গোবিন্দ দাসের বাড়ি থেকে পড়াশোনা করত।

জানা গেছে, বুধবার (১২ ডিসেম্বর) রূপার সাথে নাটোর জেলার জনৈক এক যুবকের বিয়ের দিন ধার্য ছিল। ধর্মীয় রীতি অনুযায়ী বিয়ের সব আয়োজন সম্পন্ন করেছিল রূপার বাবা-মা।

অপ্রাপ্তবয়স্ক ছেলে-মেয়ের বিয়ের বিষয়টি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন ইউএনও সরকার অসীম কুমার।

সঙ্গে সঙ্গে তিনি উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা রামকৃষ্ণ পালকে বিষয়টি জানান এবং বাল্যবিয়ে বন্ধ করার নির্দেশ দেন।

পরে থানা পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে রূপাদের বাড়িতে গিয়ে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে তার বাবা-মাকে জানানো হয় এবং তাদের মুচলেকা নিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়।

 

 

  • 210
    Shares


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!