মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৪৩ পূর্বাহ্ন

চাটমোহরে ফেরিওয়ালাদের কাঁধে কাঁধে জাতীয় পতাকা

ফেরিওয়ালাদের কাঁধে কাঁধে জাতীয় পতাকা

ফেরিওয়ালাদের কাঁধে কাঁধে জাতীয় পতাকা

ফেরিওয়ালাদের কাঁধে কাঁধে জাতীয় পতাকা

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি : ১৬ ডিসেম্বর দেশব্যাপী উদযাপিত হবে মহান বিজয় দিবস। বাঙালির জাতীয় জীবনে সবচেয়ে উৎসবের দিন। দিনটিকে সামনে রেখে বিপনী বিতান ও ভ্রাম্যমান বিক্রেতার লাল সবুজের পতাকা বিক্রি জমে উঠেছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বিজয় দিবস উদযাপনে প্রয়োজনীয় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে।

এসবকে ছাপিয়ে দিবসটিকে সামনে রেখে চাটমোহরে চলছে জাতীয় পতাকা বিক্রির ধুম। বিজয় দিবস এলেই বিভিন্ন স্থানে লম্বা বাঁশের লাঠিতে বিভিন্ন সাইজের পতাকা ঝুলিয়ে ফেরি করেন একশ্রেণীর মৌসুমি বিক্রেতা।

ডিসেম্বর মাস এলেই শহর থেকে গ্রাম পর্যন্ত দেখা যায় তাদের। কথা হলো এমন একজন পতাকা বিক্রেতা শামসুল ইসলামের (২৫) সাথে। শামসুল সদ্য সমাপ্ত জেএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। পড়ালেখার পাশাপাশি অভাবী সংসারে অভাব দুর করতে মৌসুমী পেশা পতাকা বিক্রি করতে এসেছে মাদারীপুর জেলা থেকে পাবনার চাটমোহরে। সে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার চর কামারকান্দি গ্রামের ইব্রাহিম হোসেনের ছেলে।

সে জানায়, মাদারীপুর থেকে তারা বিভিন্ন বয়সী ৬ জন এসে চাটমোহরের পৌর এলাকাসহ বিভিন্নস্থানে ছোট বড় মাঝারি পতাকা বিক্রি করছে। ষ্টিক পতাকা, হাতে ও মাথায় লাগানোর ব্যান্ডের ব্যাপক চাহিদা। লাল-সবুজের পতাকা ১০০ টাকা থেকে সাইজ অনুপাতে ৩৫০ টাকায় বিক্রি করছে।

বিজয়ের মাসে মৌসুমী পেশা হিসেবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ফেরি করে পতাকা বিক্রি করে। জেএসসি পরীক্ষা পর বাড়িতে বসে না থেকে ফেরি করে পতাকা বিক্রি করছে। পড়ালেখা করার প্রবল ইচ্ছে তার। অভাব আর টানাপোড়েন এর কারণে কখন পড়ালেখা বন্ধ হয়ে যায়, এই ভাবনাই সে শংকিত। সংক্ষেপে কথাগুলো বলেই আবার পতাকা…পতাকা হাঁক দিয়েই ছুটে চললো স্কুলছাত্র শামসুল।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৪:২৭
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:৪৫
    যোহরদুপুর ১১:৫৩
    আছরবিকাল ১৬:১৮
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:০১
    এশা রাত ১৯:৩১
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!