বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০১৯, ০৪:৩৯ অপরাহ্ন

ছয় ভেন্যুতে প্রিমিয়ার ফুটবল লিগ

অবশেষে সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ১৮ জানুয়ারি ছয় ভেন্যুতে শুরু হচ্ছে ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লিগ। তবে ২০১৮ সালের লিগ হচ্ছে এ বছর। সর্বশেষ আসর বসেছিল ২০১৭ সালে। সেই হিসাবে তিন বছরে একটি প্রিমিয়ার লিগ। শনিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) অনুষ্ঠিত লিগ কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

দু’দফা পেছানোর পরও শঙ্কা ছিল প্রিমিয়ার লিগ ফের পিছিয়ে যাওয়ার। ক’টি ক্লাব আবেদনও করেছিল। সে মোতাবেক লিগ কমিটি সভায়ও বসে। কিন্তু আর পেছানো হয়নি লিগ। পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান ও বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। শপথ নেয়ার পর বাফুফে ভবনে কালই প্রথম আসেন।

সভা শেষে স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে বলেন, ‘১৮ জানুয়ারিই লিগের খেলা শুরু করছি।’ পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী ১৮ জানুয়ারি শুরু হলেও ভেন্যু কমেছে দুটি। যদিও আগে বাফুফে খসড়া ফিকশ্চার করেছিল ৮ ভেন্যু নিয়ে। সেখান থেকে চট্টগ্রাম ও ফরিদপুর বাদ পড়েছে। চট্টগ্রাম আবাহনী ভেন্যু নিতে অপারগতা প্রকাশ করেছে আর ফরিদপুরের শেখ জামাল স্টেডিয়ামে ক্রিকেট লিগ চলমান থাকায় এখন ফুটবল লিগ চালানো সম্ভব নয়।

ফলে প্রিমিয়ার লিগের ভেন্যুর সংখ্যা দাঁড়াচ্ছে ছয়টি। এগুলো হল- ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, ময়মনসিংহের রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়াম, গোপালগঞ্জের শেখ মনি স্টেডিয়াম, নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়াম, নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়াম এবং সিলেট জেলা স্টেডিয়াম।

বসুন্ধরা কিংস নীলফামারী, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র সিলেট, মুক্তিযোদ্ধা গোপালগঞ্জ, নোফেল নোয়াখালী, টিম বিজেএমসি ময়মনসিংহ এবং বাকি ক্লাবগুলো হোম ভেন্যু হিসেবে বেছে নিয়েছে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম।

ভেন্যুর সংখ্যা কমায় খসড়া ফিকশ্চারে পরিবর্তনও আসছে। সালাম মুর্শেদী বলেন, ‘যেহেতু ভেন্যু কমছে। আমাদের খসড়া ফিকশ্চারেও পরিবর্তন আনতে হচ্ছে। জুলাইয়ের শেষের দিকে আশা করি লিগ শেষ করতে পারব।’

নানা কারণে মাঝপথে লিগ স্থগিত হয়। মার্চে এএফসি অ-২৩ চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাই, এপ্রিল থেকে ঢাকা আবাহনীর এএফসি কাপের ম্যাচও শুরু হবে। এই বিষয়ে লিগ কমিটির চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমরা সব কিছু বিবেচনায় এনে সমন্বয়ের চেষ্টা করছি। কয়েক দিনের মধ্যে ফিকশ্চার প্রকাশ করা হবে।’

লিগের পৃষ্ঠপোষকতা ও ক্লাবগুলোর অংশগ্রহণ বাবদ ফি সম্পর্কে সালাম মুর্শেদীর কথা, ‘স্পন্সর পাওয়া গেছে। দু-তিন দিনের মধ্যে অনুষ্ঠান করে জানানো হবে। স্পন্সর থেকে পাওয়া অর্থের সিংহভাগ ক্লাবগুলোকে দেয়া হবে। হোম ভেন্যুর যে অর্থ ক্লাবগুলো পাবে বাফুফে এর থেকে লভ্যাংশ নেবে না। এর পুরোটাই সংশ্লিষ্ট ক্লাব ও জেলা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন পাবে।’

এবার প্রিমিয়ার লিগ থেকে দুটি দল অবনমিত হবে অন্যদিকে চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ থেকে প্রিমিয়ারে উঠে আসবে একটি দল। প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় স্তর চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের দলবদল চলছে। কমলাপুর স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হবে ৫ ফেব্রুয়ারি।


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!