সোমবার, ২৫ মার্চ ২০১৯, ০২:০১ অপরাহ্ন

পাকিস্তানকে উড়িয়ে দিল নিউজিল্যান্ড

টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ করার আত্মবিশ্বাস নিয়ে ওয়ানডে সিরিজ খেলতে নেমেছিল পাকিস্তান। কিন্তু সেই আত্মবিশ্বাস কোনো কাজেই এলো না। ট্রেন্ট বোল্টের পেসে উড়ে গেলেন স্বাগতিকরা। তার দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকে সরফরাজ বাহিনীকে ৪৭ রানে হারিয়েছে নিউজিল্যান্ড। এ জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-০তে এগিয়ে গেলেন সফরকারীরা।

আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোঁচট খায় নিউজিল্যান্ড। শাহিন শাহ আফ্রিদির শিকার হয়ে দ্রুত ফিরে যান জিএইচ ওয়ার্কার। কলিন মানরো ও কেন উইলিয়ামসন মিলে প্রাথমিক ধাক্কা সামাল দেন। তারা ফেরেন একটু থিতু হয়ে। চতুর্থ উইকেটে দলের হাল ধরেন রস টেইলর ও টম লাথাম। দুর্দান্ত খেলতে থাকেন তারা। দুজনে গড়েন ১৩০ রানের জুটি।

হঠাৎই বিপর্যয় নেমে আসে কিউই শিবিরে। তোপটা দাগান শাদাব খান। ৪ বলের মধ্যে তিনি ফিরিয়ে দেন ৬৪ বলে ৫ চারে ৬৮ রান করা লাথাম, হেনরি নিকোলস ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে। খানিক পর ১১২ বলে ৫ চারে ৮০ রান করা টেইলরকে বোল্ড করে ফেরান ইমাদ ওয়াসিম।

২ রানের মধ্যে চার ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়ে নিউজিল্যান্ড। পরে ত্রাতা হিসেবে আবির্ভূত হন টিম সাউদি ও ইশ সোধি। শেষ দিকে ৪২ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়েন তারা। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ২৬৬ রান তোলে উইলিয়ামসন বাহিনী। এদিন পাকিস্তানের সেরা বোলার যৌথভাবে শাদাব ও আফ্রিদি। দুজনেই শিকার করেন চারটি করে উইকেট।

জবাবে শুরুতেই বড়সড় ধাক্কা খায় পাকিস্তান। হিংস্র থাবা মারেন ট্রেন্ট বোল্ট। তৃতীয় ওভারে টানা তিন বলে ফিরিয়ে দেন ফখর জামান, বাবর আজম ও মোহাম্মদ হাফিজকে। এ নিয়ে নিউজিল্যান্ডের তৃতীয় বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিকের কীর্তি গড়েন বোল্ট। মূলত এখানে স্বাগতিকদের মেরুদণ্ড ভেঙে যায়। পরে প্রতিরোধের চেষ্টা করেছে পাকিস্তান। তবে হার এড়াতে পারেনি।

চতুর্থ উইকেটে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেন ইমাম-উল-হক ও শোয়েব মালিক। একপর্যায়ে তাদের দৌড়ও থামে। ৬৩ রানের জুটি গড়েন তারা। এ দুই ব্যাটসম্যানের পরপরই শাদাব বিদায় নিলে হারের মুখে পড়ে পাকিস্তান। কিন্তু না! নাটকের তখনও বাকি ছিল। সপ্তম উইকেটে ১০৩ রানের জুটি গড়ে দলকে লড়াইয়ে রাখেন সরফরাজ আহমেদ ও ইমাদ। ৬৯ বলে ৭ চারে ৬৪ রান করে অধিনায়কের বিদায়ে ভাঙে প্রতিরোধ। পরে হাসান আলির সঙ্গে ৩১ রানের জুটি গড়ে হাফসেঞ্চুরি স্পর্শ করেন ইমাদ। ৭২ বলে ২ ছক্কায় কাঁটায় ৫০ করে এ অলরাউন্ডার ফিরলে হুড়মুড় করে ভেঙে পড়ে পাকিস্তান। শেষ পর্যন্ত ১৬ বল বাকি থাকতেই ২১৯ রানে গুটিয়ে যায় তারা।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে ৫৪ রানে ৩ উইকেট নেন বোল্ট। হ্যাটট্রিকে পাকিস্তানের হারের সুর বাজানোয় ম্যাচসেরার পুরস্কার উঠেছে তার হাতেই। ৩ উইকেট নিয়ে তাকে যোগ্য সহযোদ্ধার সমর্থন দেন লকি ফার্গুসন।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৪:৪০
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:৫৮
    যোহরদুপুর ১২:০৫
    আছরবিকাল ১৬:২৯
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:১১
    এশা রাত ১৯:৪১
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!