শুক্রবার, ১৮ জানুয়ারী ২০১৯, ০১:৩৬ অপরাহ্ন

পাবনায় ফেরি করে বিদ্যুৎ বিক্রি!

 

নিজস্ব প্রতিনিধি : ‘বিদ্যুৎ লাগবে, বিদ্যুৎ!’ বিদ্যুৎ অফিসের লোকদের এমন ডাকে প্রথমে আশ্চর্য হতে পারেন।

কিন্তু বিষয়টি আশ্চর্যের হলেও সত্য। পাবনায় বিদ্যুৎ এখন ফেরি করে বিক্রি হচ্ছে। ভ্যান গাড়িতে মিটার, তার ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম নিয়ে লাইনম্যানরা একেকদিন একেক এলাকায় ছুঁটছেন।

যাদের বাড়িতে বিদ্যুৎ নেই তাদের আর অফিসে না গেলেও চলবে। যোগাযোগ করে তাদের বাড়িতে পৌঁছে যাচ্ছে ‘আলোর ফেরিওয়ালা ’ ব্যানার লাগানো ভ্যান।

ঘরে ওয়ারিং করা থাকলে কোনো ঝামেলা ছাড়াই ৫ থেকে ১০ মিনিটের মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে বিদ্যুৎ সংযোগ।

সংযোগ ফি ও অন্য খরচ মিলিয়ে গ্রাহককে তাৎক্ষণিক রশিদের মাধ্যমে পরিশোধ করতে হচ্ছে মাত্র ৪শ ৫০ টাকা।

বর্তমান সরকারের অঙ্গীকার মোতাবেক ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ এর বিদ্যুৎ অফিস।

“শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ” এই স্লোগানকে বাস্তবায়নে পাবনা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি (পবিস)-১ এর আওতাধীন ৬টি উপজেলায় “আলোর ফেরিওয়ালা” পরিচালিত হচ্ছে।

এতে সাড়া পড়েছে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে। উপজেলাগুলো হচ্ছে চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া, ফরিদপুর, আটঘরিয়া, ঈশ্বরদী ও পাবনা সদর (আংশিক)।

পাবনা পবিস-১ কর্তৃক বছরের শুরুতে বিভিন্ন এলাকায় নতুন মিটার সংযোগ, বৈদ্যুতিক তার, মালামালসহ এলাকায় ঘুরে ঘুরে আবেদনপত্র সংগ্রহ, সদস্য ফি ও জামানতের টাকা নিয়ে তাৎক্ষনিক পরিদর্শন পূর্বক নতুন মিটার সংযোগ প্রদান করছে।

গত ৬ জানুয়ারি থেকে গ্রামে গ্রামে এই ‘আলোর ফেরিওয়ালা’র চলাচল শুরু হয়েছে। এই পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতাধীন সকল উপজেলায় ইতোমধ্যেই শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাটমোহর, ভাঙ্গুড়া, ফরিদপুর ও আটঘরিয়া উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়নের উপজেলা হিসেবে ঘোষণাও করেছেন।

কোন প্রকার দালাল ছাড়াই বাড়ি বাড়ি গিয়ে সহজেই বিদ্যুৎ সংযোগের ঘটনায় সাধারণ মানুষ বেশ খুশী।

পবিস-১ এর জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী মাশফিকুল হাসান জানান, যেসব বাড়িতে বিদ্যুত সংযোগ নাই, সেইসব বাড়ি খুঁজে খুঁজে তাদের বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে “আলোর ফেরিওয়ালা” কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

 

 


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!