মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন

পাবনায় যৌতুকের কারণে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

বার্তা সংস্থা পিপ, পাবনা : পাবনায় যৌতুকের কারণে রোজিনা খাতুন (৩৮) নামের গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নিহতের মা মোমেনা খাতুন বাদী হয়ে আটঘরিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, পাবনা সদর উপজেলা মালিগাছা ইউনিয়নের ভজেন্দ্রপুর গ্রামের মো: রফিকুল ইসলামের মেয়ে মোছা: রোজিনা খাতুনের সাথে আটঘরিয়া উপজেলার চাঁদভা ইউনিয়নের কদমডাঙ্গা মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত ওসমান মন্ডলের ছেলে হাসান আলী মন্ডলের সাথে দেড় যুগ আগে বিয়ে হয়।

দীর্ঘ ১৮ বছরের সংসার জীবনে তাদের ঘরে একটি কন্যা সন্তান হাফিজা খাতুন ও একটি পুত্র সন্তান হাফিজুর রহমান জন্ম গ্রহন করেন।

সংসার জীবনে তাদের মধ্যে যৌতুকের টাকা নিয়ে মাঝে মধ্যেই ঝগড়া বিবাদ চলে আসছিল। নভেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহের দিকে হাসান মন্ডল মালয়েশিয়া থেকে বাড়ীতে ফিরে আসে।

আসার পর থেকে হাসান ৩ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করেন স্ত্রী রোজিনা খাতুনের কাছে। এই নিয়ে হাসান বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে স্ত্রী রোজিনার ওপর শারীরিক ও অমানুষিক নির্যাতন চালাত।

গত ২৪ নভেম্বর সকাল ৯টার দিকে স্ত্রী রোজিনা খাতুনকে মারপিট করে তার বাবার বাড়ী থেকে যৌতুকের ৩ লাখ টাকা আনার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। এ সময় রোজিনা খাতুন যৌতুকের টাকা দিতে অম্বীকার করলে রোববার ভোরে স্বামী হাসান আলী, মনিরুল ইসলাম মন্ডল, রফিক মন্ডল গং চুলের ঝুটি ধরে তার শরীরিরে বিভিন্ন স্থানে এলোপাথারী ভাবে মারপিট করে জখম করে এবং রোজিনা খাতুনকে পরিকল্পিত ভাবে শ্বাসরোধে হত্যা করে গলায় ফাঁস দিয়ে ঘরের ডাবের সাথে ঝুলিয়ে রাখে বলে অভিযোগ উঠেছে।

পরে অবস্থা বেগতিক দেখে তারা দ্রুত আটঘরিয়া হাসপাতালে রোজিনাকে ভর্তি করে। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এসময় রোজিনার লাশ হাসপাতালে ফেলে রেখে অন্যত্র পালিয়ে যায় শ্বশুর বাড়ির লোকজান।

এ ঘটনার পরে আটঘরিয়া থানা পুলিশ খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাবনা মর্গে প্রেরণ করেছে। ঘটনার সাথে জড়িত আসামীরা পালাতক রয়েছে।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৫:০৭
    সূর্যোদয়ভোর ০৬:২৯
    যোহরদুপুর ১১:৫১
    আছরবিকাল ১৫:৩৬
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৭:১২
    এশা রাত ১৮:৪২
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!