সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:৪৪ অপরাহ্ন

ফখরুল আউট, রিজভী ইন

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে তার পদ থেকে পরিবর্তন করে সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী অথবা স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে উক্ত পদে নিয়োগ দেয়া হতে পারে। এক্ষেত্রে মহাসচিব হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে আছেন রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে তার পদ থেকে পদচ্যুত করার আভাস কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিলো। আর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাথে শেখ হাসিনার সংলাপ এর পর থেকে এটি আরো জোরালো হয়। ধারণা করা হচ্ছে, তারেক রহমান এর ইশারায় এসব করা হচ্ছে।

১ নভেম্বর জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাথে শেখ হাসিনার সংলাপ চলাকালে, শেখ হাসিনা ২১ শে আগস্ট নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর মন্তব্য জানতে চান। এ সময়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কোন মন্তব্য না করে মাথা নিচু করে ছিলেন। তাছাড়া সংলাপ চলাকালে খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে জোরালো কোনো অবস্থান নেননি বিএনপির কোনো নেতাই। এমনকি সংলাপে একবার ও তারেক জিয়ার নাম উচ্চারণ করা হয় নি। মহাসচিব হিসেবে এসব কিছুর দায়ভার মির্জা ফখরুল এর উপরেই বর্তায়। এসব বিষয় নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর উপর চরম অসন্তুষ্ট ও বিরক্ত তারেক রহমান।

এদিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র করা হয়েছে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের হয়ে বিভিন্ন টকশোতে দেখা যাচ্ছে মাহমুদুর রহমান মান্নাদেরকে। এক কথায় বলা যায়, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্ব রাখা হচ্ছে বিএনপি নেতাদের বাদ দিয়ে। জিয়া পরিবারকে রাজনীতি থেকে বাদ দিতেই কি এই ষড়যন্ত্র? আসলেই কি বিএনপির নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হচ্ছে জিয়া পরিবারকে। আর এই ষড়যন্ত্রের সাথে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জড়িত এমন ধারণা থেকেই তারেক রহমান এর নির্দেশে মহাসচিব এর পদ হারাচ্ছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার জায়গায় স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন তারেক রহমান এর একান্ত অনুগত রুহুল কবির রিজভী।

  • 7
    Shares


বিজয় নিশান উড়ছে ঐ…

© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!