মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯, ১১:০২ অপরাহ্ন

বডি স্প্রে ব্যবহার করে বিপদ ডেকে আনছেন?

বডি স্প্রে ব্যবহার করে বিপদ ডেকে আনছেন?

স্বাস্থ্য ডেস্ক : ঘামের দুর্গন্ধ থেকে রেহাই পেতে প্রায় প্রত্যেকেই বডি স্প্রে বা ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করেন। বডি স্প্রে ব্যবহার করাটা নিত্যদিনের অভ্যাস হয়ে গেছে। কিন্তু প্রতিদিন এই কাজ করার ফলেই কি একটু একটু করে বেড়ে চলেছে ক্যান্সারের আশংকা? অন্তত সাম্প্রতিক সমীক্ষা সে ইঙ্গিতই দিচ্ছে।

স্তন ক্যান্সারের কারণ খুঁজতে গিয়ে কাঠগড়ায় উঠেছে বডি স্প্রে বা ডিওডোরেন্ট। দেখা যাচ্ছে বেশিরভাগ ক্যান্সারই ধরা পড়ছে স্তনের উপরিভাগে। বা বাঁ-দিকের বাহুমূলে। ডিওডোরেন্ট ব্যবহারকারী ২০জনের মধ্যে ১৮ জনের ক্যান্সার ধরা পড়েছে। এবং সেই টিউমারের নমুনা সমীক্ষা করে মিলেছে ‘প্যারাবেন’ নামে এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ। এই রাসায়নিক পদার্থই ক্যান্সারের জন্য দায়ী। যা যথেচ্ছভাবে পাওয়া যায় ডিওডোরেন্টে।

মলিকিউলার বায়োলজিস্ট ডঃ ফিলিপ্পি দরব্রে এই নিয়ে রীতিমতো গবেষণা করেছেন। আর তাতেই উঠে এসেছে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য।

জানা যাচ্ছে, বেশিরভাগ বডি স্প্রে ও ডিওডোরেন্টে প্রিজারভেটিভ হিসেবে ব্যবহৃত হয় এই রাসায়নিক। যা শরীরের কোষ শোষণ করে নেয়। দিনে দিনে তা ক্যান্সারের আশংকা বাড়িয়ে তোলে। স্তন ক্যান্সারের কেসস্টাডি করতে গিয়ে এ বিষয়টি নজরে আসে। কেন স্তনের উপরিভাগেই ক্যান্সার থাবা বসায়? কেনই বা বাম বাহুমূলে ক্যান্সার বেশি হয়? উত্তর খুঁজতে গিয়ে দেখা যায়, এর নেপথ্যে আছে বডি স্প্রে-র ব্যবহার। যেহেতু বেশিরভাগ মানুষই ডানহাতি, সে কারণে বাঁদিকে বডি স্প্রে-র প্রয়োগ হয় বেশি।

এছাড়া বুকের উপরিভাগেও অনেকে ডিওডোরেন্ট প্রয়োগ করেন। তাই শরীরের ওই অংশের কোষ এই রাসায়নিক পদার্থ শোষণ করে। তাই ওই অংশে ক্যান্সারের প্রকোপ বেশি। এছাড়া ডিওডোরেন্টে অ্যালুমিনিয়াম থাকে, যা ক্যান্সারের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

ভারতের সংবাদ প্রতিদিন পত্রিকার খবরে বলা হয়, বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, নারীদের ব্যবহৃত যেকোনো প্রসাধনী দ্রব্যেই এমন সব রাসায়নিক থাকে, যা ক্যান্সারের কারণ হয়ে ওঠে। ক্রমাগত এই ধরনের কসমেটিকসের ব্যবহারে ত্বকে ক্যান্সার হতে পারে। তাই প্রাকৃতিক জিনিস দিয়েই রূপচর্চার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৩:৫২
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:২১
    যোহরদুপুর ১২:০৪
    আছরবিকাল ১৬:৪৪
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:৪৮
    এশা রাত ২০:১৮
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!