বৃহস্পতিবার, ১৬ অগাস্ট ২০১৮, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন

শিক্ষার্থীদের আন্দোলন শেষ হলেও থেমে নেই গুজব ও ষড়যন্ত্র

নিরাপদ সড়কের দাবিতে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নিয়ে জল ঘোলা করা বন্ধ হয়নি এখনো। ষড়যন্ত্রকারীরা এখনো শিক্ষার্থীদের এই যৌক্তিক আন্দোলন থেকে রাজনৈতিক ফায়দা লুটার জন্য তৎপর হয়ে আছে। প্রসঙ্গত গত ২৯ জুলাই শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী বাস চাপায় নিহত হওয়ার জের ধরে রাজপথে আন্দোলনে নামে রাজধানীর বিভিন্ন স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনের শুরু থেকেই কুচক্রীমহল শিক্ষার্থীদের বিভ্ৰান্ত করে এই আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে নেয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়, যা এখনো চলমান।

উল্লেখ্য, স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নেমে সরকারের কাছে নিরাপদ সড়ক সহ ৯ দফা দাবি তুলে ধরেছে। তাদের এই ৯ দফা দাবির যৌক্তিকতা মেনে নিয়ে তা বাস্তবায়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী সহ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রীরা। তাদের দাবি বাস্তবায়নে ইতোমধ্যে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকার। সরকারের পক্ষ থেকে শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নেয়ায় সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে আনন্দ মিছিল করেছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলন চলাকালীন সময়ে বিএনপি ও জামায়াত সমর্থিত বিভিন্ন ফেসবুক পেইজ ও গ্রুপ থেকে বিভিন্ন ধরণের উস্কানি মূলক গুজব ছড়িয়ে শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনকে সহিংসতায় ঠেলে দিয়ে সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে চেয়েছিল সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রকারীরা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মীরা শিক্ষার্থী পরিচয়ে অংশগ্রহণ করে পুলিশ, সাংবাদিকের উপর হামলা করে আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে নেয়ার পাঁয়তারা করেছিল তারা।

এদিকে আন্দোলন শেষ হয়ে গেলেও বিএনপি জামায়াতের ফেসবুক পেজ ও গ্রুপ গুলো এখনো এই আন্দোলন সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরণের গুজব অব্যাহত রেখেছে। সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের ছাত্রলীগের নেতা কর্মী বলে ভুয়া পরিচয় প্রকাশ করে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। যেসব সন্ত্রাসীর ছবি দিয়ে তারা ছাত্রলীগের কর্মী বলে প্রচার করে যাচ্ছে, খোঁজ নিয়ে জানা যাচ্ছে তারা প্রকৃতপক্ষে তারা বিভিন্ন ইউনিটের ছাত্রদল ও শিবিরের নেতাকর্মী। সরকারকে বেকায়দায় ফেলতেই মূলত ছাত্রলীগ পরিচয়ে আন্দোলনে হামলা চালিয়েছে তারা।

এছাড়া এই আন্দোলনকে কি করে আবারো চাঙ্গা করে সরকার পতনের আন্দোলনে রূপ এ নিয়ে ষড়যন্ত্রের নীল নকশা এঁকে যাচ্ছে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা। বিশ্বস্ত সূত্রে পাওয়া খবর মতে এই আন্দোলন নিয়ে একাধিক বার বৈঠকে বসেছেন ফখরুল রিজভীরা। লন্ডন থেকে তারেক রহমান দিচ্ছেন দিক নির্দেশনা।

বাংলাদেশের রাজনীতিতে দীর্ঘদিন ধরে ব্যাকফুটে থাকার কারণেই এমন ষড়যন্ত্রমূলক কর্মকান্ড করতে চাচ্ছে বলে ধারণা দেশের একাধিক রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!