রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:২৫ অপরাহ্ন

‘শ্যাডো ডিপ্লোম্যাসিতে’ বেগম জিয়ার মুক্তির আশা!

দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত বেগম জিয়াকে আইনি উপায়ে মুক্ত করতে ব্যর্থ হয়ে এবার ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করেছেন তারেক রহমান ও লন্ডনে অবস্থিত পাকিস্তান দূতাবাস। সৌদি আরবে সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বেগম জিয়ার মুক্তির বিষয়ে রাজি করাতে রিয়াদে অবস্থিত পাকিস্তান দূতাবাস সৌদি কর্তৃপক্ষকে সুপারিশ করার মিশনে নেমে পড়েছে।

বিএনপি ও পাকিস্তান সরকারের এই সমন্বিত প্রচেষ্টাকে চূড়ান্ত রূপ দিতে তৎপরতায় ইসরাইল কর্তৃপক্ষও শামিল হয়েছে বলে জানা গেছে।

বিএনপির রাজনীতি পর্যবেক্ষণ করে এমন একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রের বরাতে তথ্যের সত্যতা সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

লন্ডন ভিত্তিক একটি সূত্র বলছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান বুঝতে পেরেছেন যে, আইনি ও রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় বেগম জিয়ার মুক্তি আদায় করা সম্ভব নয়। কারণ আন্দোলন করার মতো অবস্থায় বিএনপি নেই। এজন্য কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাওয়া ছাড়া বিকল্প অপশন আর নেই। সেই লক্ষ্যকে সামনে রেখে, ৩১ মে সন্ধ্যায় লন্ডনের স্থানীয় একটি হোটেলে পাকিস্তান দূতাবাসের দুজন কর্মকর্তার সঙ্গে দীর্ঘ ২ ঘণ্টা ব্যাপী ইফতার পরবর্তী বৈঠকে মিলিত হন। আলোচনায় তারেক সৌদি সরকারকে বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সুপারিশ করার বিষয়েও সিদ্ধান্ত নেন। সেক্ষেত্রে পাকিস্তানের লন্ডন দূতাবাস সৌদি দূতাবাসের সঙ্গে সমন্বয় সাধন করবে।

এছাড়া ওআইসি’র বৈঠকে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সেখানে অবস্থান করছেন। ইমরান খানের সাথে আবার সৌদি প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের বিশেষ সখ্যতার বিষয়ে সকলেই জানে। তাই পাকিস্তানি লবিং মেইনটেইন করে বেগম জিয়ার মুক্তির জন্য সৌদিসহ মুসলিম দেশগুলোর সমর্থন আদায় করতে চান তারেক। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো আবার ইসরাইলকে বেশ সমীহ করে। তাই পাকিস্তানের লন্ডন দূতাবাস এই মিশনে ইসরাইলকে সাথে নেয়ারও পরিকল্পনা করেছে। এরই মধ্যে ইসরাইলকে এই বিষয়ে জানিয়েছে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ। তবে এখন পর্যন্ত কোন সাড়া পাওয়া যায়নি। কারণ ইসরাইল বেগম জিয়ার মুক্তিতে তাদের লাভের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে উপনীত হলেই মিশনে যুক্ত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

অন্য একটি সূত্র বলছে, ঈদের আগে বিএনপিকে সান্ত্বনা পুরষ্কার দিতেই পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ শেষ এই প্রচেষ্টা চালাতে চায়। সৌদি আরব যদি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে, তবেই তারেকের এই মিশন সফল হতে পারে। এছাড়া ইসরাইল যদি ‘শ্যাডো ডিপ্লোম্যাটিক অ্যাকশনে’ সফল হয় তবেই আশার আলো দেখতে পারবেন তারেক। সেক্ষেত্রে বড় ধরণের বিপুল পরিমাণে অর্থ ব্যয় করতে হতে পারে তারেককে। তবে অর্থকে প্রাধান্য দিলে তারেক এই মিশনে সফল নাও হতে পারেন বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৪:২৯
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:৪৭
    যোহরদুপুর ১১:৫১
    আছরবিকাল ১৬:১৪
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৭:৫৫
    এশা রাত ১৯:২৫
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!