বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৫:১৩ পূর্বাহ্ন

সন্ধ্যা নাশতায়

বিকেলে মুখরোচক এবং পুষ্টিকর খাবার এনে দেয় সতেজ ভাব। শীতের এ সময়ে গরম স্যুপ না হলেই নয়। আর সুপের সঙ্গে হালকা নাশতা এনে দেয় পরিপূর্ণতা। চার ধরনের স্যুপ আর নাশতার রেসিপি দিয়েছেন রন্ধনশিল্পী নাজিয়া ফারহানা

গার্লিক ব্রেড

উপকরণ :২ টেবিল চামচ রসুন (ভালো করে ছেঁচে নেওয়া), কোয়ার্টার কাপ মাখন (লবণ ছাড়া নরম করে নেওয়া), ১ টেবিল চামচ এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল, ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা (ভালো করে কুচি করে নেওয়া), ১টি পাউরুটি (১৫ ইঞ্চি বাই সাড়ে ৩ ইঞ্চি, ইতালিয়ান ব্রেড হলে ভালো)।

প্রস্তুত প্রণালি : ওভেন ২৫০ ডিগ্রিতে প্রি-হিট করে নিন। একটি বাটিতে আধা টেবিল চামচ লবণ, রসুন ছেঁচা, মাখন এবং তেল দিয়ে ভালো করে নাড়তে থাকুন। মসৃণ হয়ে গেলে ধনেপাতা ছেড়ে দিয়ে ভালো করে মিক্স করে নিন। রুটিকে পুরোপুরি না কেটে ১ ইঞ্চি অথবা আধা ইঞ্চি করে স্লাইস করে নিন। (বাজারের স্লাইস করা রুটি দিয়েই করতে পারবেন)। এরপর মাখনের মিক্স প্রতিটি স্লাইসের ফাঁকে ফাঁকে চাকু দিয়ে মাখয়ে দিন। ফয়েল পেপার দিয়ে ওভেন ট্রেতে ব্রেড সাজিয়ে নিয়ে ১০ মিনিট বেক করে নিন। ব্যস, তৈরি হয়ে গেল আপনার রেস্তোরাঁ স্টাইল গার্লিক ব্রেড।

টম ইয়াম স্যুপ

উপকরণ : মুরগির স্টক ৬ কাপ, চিংড়ি মাছ মাঝারি সাইজের ২৫০ গ্রাম, আদা ১ টুকরা, থাই লেবুপাতা ৪-৫টি, লেমন গ্রাস ২টি, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, মাশরুম টুকরা ২ টেবিল চামচ, চিনি ২ চা চামচ, টেস্টিং লবণ ১ চা চামচ, লেবুর রস ১ টেবিল চামচ, ফিশ সস ৩ টেবিল চামচ, টম ইয়াম পেস্ট ২ চামচ, কারনেশন মিল্ক্ক ৩ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ পাতা কুচি লাগবে ২ টেবিল চামচ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, লবণ পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি :পানি ৪ লিটার, ১৪ ছটাক মুরগি, আদা বাটা আধা চা চামচ, রসুন বাটা সিকি চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা সিকি চা চামচ, লবণ ১ চা চামচ, তেজপাতা ১টি। সব উপকরণ একসঙ্গে ৪ লিটার পানিতে দিয়ে মাঝারি আঁচে জ্বাল দিতে হবে। পানি কমে গিয়ে যখন প্রায় অর্ধেক হবে, তখন নামিয়ে ছেঁকে নিতে হবে।

টম ইয়াম পেস্ট : উপকরণ :পেঁয়াজ নিন আধা কেজি, রসুন ২০০ গ্রাম, মিষ্টি মরিচ গুঁড়া ১০০ গ্রাম, তেঁতুল ৫০ গ্রাম, টেস্টিং লবণ ১ চা চামচ, চিনি ২ চা চামচ, ভাজার জন্য তেল পরিমাণমতো।

প্রস্তুত প্রণালি :চিংড়ি মাছের মাথা ও খোসা ফেলে দিয়ে লেজ রেখে দিতে হবে। স্টক চুলায় দিয়ে চিংড়ি মাছ ও বাকি সব উপকরণ পর্যায়ক্রমে দিয়ে তারপর লবণ ও টক ঠিক আছে কি-না দেখে নামাতে হবে। এবার পেঁয়াজ, রসুন ছিলে কুচি করে কেটে নিতে হবে। তেঁতুল ঘন করে মিশিয়ে দিতে হবে। তেল গরম করে পেঁয়াজ ও রসুন আলাদা করে ভেজে বেরেস্তা করে নিতে হবে। ভাজা পেঁয়াজ, রসুন বেটে নিতে হবে। প্যানে অল্প ভাজা তেল দিয়ে বাটা পেঁয়াজ, রসুন ও পর্যায়ক্রমে বাকি উপকরণ দিয়ে মাঝারি জ্বালে নড়াচাড়া করতে হবে। তেল ওপরে এলে নামাতে হবে। লক্ষ্য রাখতে হবে যেন পুড়ে কালো হয়ে না যায়। তারপর গরম গরম পরিবেশন করুন।

ফ্রাইড মোমো

উপকরণ ডো-এর জন্য :২৫০ গ্রাম রিফাইন্ড ময়দা আধা টেবিল চামচ, লবণ কোয়ার্টার টেবিল চামচ, বেকিং পাউডার ফিলিংয়ের জন্য, ৩০০ গ্রাম চিকেন বুকের মাংস, তেল ভাজার জন্য, আধা কাপ পেঁয়াজ কুচি ১ টেবিল চামচ, রসুন কুচি আধা টেবিল চামচ, সয়াসস আধা টেবিল চামচ, লবণ কোয়ার্টার টেবিল চামচ, ভিনেগার কোয়ার্টার টেবিল চামচ ও গোলমরিচ গুঁড়া।

প্রস্তুত প্রণালি :ময়দা, লবণ ও বেকিং পাউডার মিশিয়ে একটু পানি দিয়ে ভালো করে মেখে ডো বানান। একটি পাত্রে ১ টেবিল চামচ তেল নিয়ে গরম করে তাতে পেঁয়াজ ও রসুন কুচি ছেড়ে দিয়ে নাড়ুন। একটু নরম হয়ে এলে তাতে মুরগির মাংস ছাড়ুন। তাপ বাড়িয়ে মাংস রান্না করুন। মাংস সিদ্ধ হয়ে এলে জ্বাল কমিয়ে সয়াসস, লবণ, ভিনেগার এবং গোলমরিচ গুঁড়া মেশান। পাত্রটি নামিয়ে ফেলুন। হয়ে গেলে ফিলিংয়ের মিক্সচার তৈরি করুন। তারপর ডো’কে বেলুন পাতলা করে এবং ৪-৫ ইঞ্চি গোল গোল ছোট্ট রুটির মতো করে তা থেকে কেটে নিন। রুটিগুলোর মধ্যে মিক্সচার দিয়ে কিনারে পানি লাগিয়ে কিনারগুলো মাঝে নিয়ে মিক্সচারকে ভেতরে রেখে টুইস্ট করে দিন। ভাপে টুইস্টেড মোমোগুলো ১০ মিনিট ঢেকে রাখুন। তারপর ঠাণ্ডা হতে দিন। পরিবেশনের আগে ডুবো তেলে ব্রাউন ও ক্রিস্পি করে ডিপ ফ্রাই করুন। সয়াসস ও চিলিসস দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার ফ্রাইড চিকেন মোমো।

টমেটো স্যুপ

উপকরণ : টমেটো ৪-৫টি (পাকা লাল দেখে নেবেন)। সয়াবিন তেল অথবা অলিভ অয়েল ১ চা চামচ। গোলমরিচের গুঁড়া স্বাদমতো। রসুন বাটা কোয়ার্টার চা চামচ। চিকেন স্টেক ১ কিউব। কর্নফ্লাওয়ার প্রয়োজনমতো। লবণ স্বাদমতো। চিনি আধা চা চামচ। ধনেপাতা ১ চা চামচ (কুচানো)।

প্রস্তুতি প্রণালি :চুলায় প্যান বা হাঁড়িতে পানি দিয়ে ফুটতে দিন। টমেটোগুলো ছুরি দিয়ে একটু চিরে ফুটন্ত পানিতে ছেড়ে চার থেকে পাঁচ মিনিট রাখুন। খেয়াল রাখবেন টমেটো যেন ভর্তা না হয়ে যায়, শুধু খোসাগুলো উঠে আসবে। পানি থেকে টমেটোগুলো তুলে খোসা ছাড়িয়ে নিন। তারপর দু’ফালি করে নিয়ে দানাগুলো ফেলে ব্লেন্ড করে নিন। বাসায় ব্লেন্ডার না থাকলে খোসা আর দানা ছাড়ানো টমেটোগুলো আবারও গরম পানিতে দিয়ে ভালো করে সেদ্ধ করে ডাল ঘুটনি দিয়ে ঘুটে যতটা সম্ভব মসৃণ করে ফেলতে হবে। প্যানে তেল দিয়ে রসুন বাটা একটু ভেজে ব্লেন্ড করে রাখা টমেটো দিয়ে একটু কষিয়ে নিন। তারপর প্রয়োজনমতো পানি আর লবণ দিন। চাইলে ঘরে বানানো চিকেন স্টেকও ব্যবহার করতে পারেন বা বাইরের কেনা চিকেন স্টেকের একটা কিউবও ছেড়ে দিতে পারেন। ফুটে উঠলে গোলমরিচের গুঁড়া দিন। অল্প চিনি দিয়ে স্বাদ ঠিক করে নিন। প্রয়োজনমতো কর্নফ্লাওয়ার গুলিয়ে মিশিয়ে দিন। চাইলে কর্নফ্লাওয়ার না মিশিয়ে ক্লিয়ার স্যুপও করতে পারেন। ধনেপাতার কুচি ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ফ্রেঞ্চ অনিয়ন স্যুপ

৫ কাপ পেঁয়াজ, ৬টি পাউরুটির স্লাইস, ৬টি পনির স্লাইস, ঝুরি ৬ টেবিল চামচ, ডিম ৬টি, মাখন ২ টেবিল চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :স্যুপের জন্য পরিবেশনের আলাদা বাটি নিন। প্রত্যেক বাটির অর্ধেক স্যুপ নিন। গরম স্যুপের বাটিতে একটি ডিম ভেঙে দিন। পাউরুটি বাটির আকারে গোল করে কেটে টোস্ট করুন। বাটির স্যুপের ওপর পাউরুটি রাখুন। সামান্য মাখন দিয়ে পেঁয়াজ অল্প ভেজে পাউরুটির ওপরে ছড়িয়ে দিন। পেঁয়াজের ওপরে পনির কুচি ছিটিয়ে দিন। ওভেনে ১৩৫ সে. (২৭৫ ফা.) দিয়ে পনির গলে খুব হালকা বাদামি রঙ হলে নামিয়ে নিন।

ব্রুশেটা ডিশ

উপকরণ :পিস করা ফরাসি বাগেত পাউরুটি (যে কোনো ভালো বেকারির), ৬০ গ্রাম গোট চিজ, ৮০ গ্রাম পাতলা পাতলা করে কেটে ব্রাঞ্জ করে নেওয়া টমেটো, ১০ গ্রাম বেসিল পাতা, ১০ গ্রাম সদ্য ক্রাশ করে নেওয়া গোলমরিচ, স্বাদ অনুযায়ী লবণ, ১০ মিলি এক্সট্রা ভার্জিন অলিভ অয়েল, ১০ মিলি বালসামিক রিডাকশন।

প্রস্তুত প্রণালি : বালসামিক ভিনেগার আর চিনি একসঙ্গে মিশিয়ে অল্প আঁচে চড়ান। বেশ খানিকক্ষণ ফোটার পর মিশ্রণটা ঘন হয়ে যাবে, তখন নামিয়ে ঠাণ্ডা করে নিলেই বালসামিক রিডাকশন পেয়ে যাবেন। একটা লোফ পাউরুটি থেকে মোটা করে ছয় টুকরা কেটে নিন। ওভেন গরম করে নিয়ে পাউরুটি মচমচে করে সেঁকুন। তারপর গোট চিজ, টমেটো, বেসিল, লবণ-গোলমরিচ, অলিভ অয়েল, রিডাকশন দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

গাজরের স্যুপ

উপকরণ : গাজর ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ চার ভাগের এক কাপ, মাখন চার ভাগের এক কাপ, মরিচ গুঁড়া ২ চা চামচ, ধনে গুঁড়া চার ভাগের এক চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া আধা চা চামচ, লং গুঁড়া চার ভাগের এক চা চামচ, এলাচ গুঁড়া চার ভাগের এক চা চামচ, ক্রিম আধা কাপ, ভেজিটেবল স্টক ৩ কাপ, লবণ স্বাদমতো, পুদিনা পাতা ৫-৬টি।

প্রস্তুত প্রণালি : গাজর ও পেঁয়াজ ছোট ছোট টুকরা করুন। প্যানে মাখন গলিয়ে তাতে পেঁয়াজগুলো কয়েক মিনিট ভাজুন। এর সঙ্গে গাজর দিন, কিছু সময় ভাজুন। মরিচ গুঁড়া, লং গুঁড়া, ধনে গুঁড়া, এলাচ গুঁড়া, গরম মসলা গুঁড়া মিশিয়ে নাড়ূন। তারপর এতে ভেজিটেবল স্টেক ও লবণ মেশান। অল্প আঁচে ২০ মিনিট রান্না করুন। প্রয়োজনমতো কয়েক মিনিট গরম করে পরিবেশন ডিশে ঢালুন। ক্রিম ও পুদিনা পাতা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

স্প্রিং রোল

উপকরণ :সবজি (গাজর, পেঁপে, আলু, বাঁধাকপি, ফুলকপি) ভাপিয়ে নেওয়া ২ কাপ, ময়দা আধা কাপ, কর্নফ্লাওয়ার আধা কাপ, লবণ আধা চা চামচ, চিনি আধা চা চামচ, টেস্টিং সল্ট আধা চা চামচ, সয়াসস ১ চা চামচ, সয়াবিন তেল পরিমাণমতো, রসুন বাটা আধা চা চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, ডিম ১টি, পুদিনা বা পেঁয়াজ পাতাকুচি ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি :ময়দা, লবণ, চিনি, ডিম ও কর্নফ্লাওয়ার একসঙ্গে মিশিয়ে খামির তৈরি করুন। এই খামির থেকে লেচি কেটে খুব পাতলা রুটি বেলুন। সেই রুটিগুলো তাওয়ায় দিয়ে গরম করুন। সেঁকবেন না কিংবা রুটিতে কোনো দাগ পড়বে না। স্রেফ গরম করুন রুটির কাঁচা ভাবটা চলে যাওয়া পর্যন্ত (যারা রুটি বেলার কষ্ট করতে চান না, তারা বাজার থেকে স্প্রিং রোল শিট কিনে নিতে পারেন)। দেশীয় কোম্পানির স্প্রিং রোল শিট পাবেন ১৫০-২০০ টাকায়। এক প্যাকেটে অনেকগুলো তৈরি করা যাবে। কড়াইতে তেল দিয়ে রসুন, আদা, সবজি, টেস্টিং সল্ট, সয়াসস, পেঁয়াজ কুচি, গোলমরিচের গুঁড়া, পুদিনা পাতা কুচি, লবণ ও চিনি দিয়ে একটু নেড়ে নিন। পানি দেবেন না। ভালো করে ভাজা ভাজা করে নিন। এরপর পাতলা রুটির মধ্যে পুরের মতো করে সবজি দিয়ে লম্বা লম্বা রোল তৈরি করুন। একটি গোল রুটি নেবেন, লম্বা করে খানিকটা পুর বিছিয়ে রুটির দু’পাশ মুড়ে নেবেন। তারপর সুন্দর করে রোল করে শেষ প্রান্ত আটকে দেবেন গোলানো ময়দা দিয়ে। কড়াইয়ে ডুবো তেল দিয়ে বাদামি করে ভেজে পরিবেশন করুন। সুইট চিলি সসের সঙ্গে দারুণ লাগবে এই রোল।

ফিশ কেক

উপকরণ :টুনা টিন ১টি (টিন থেকে টুনা পানি ঝরিয়ে নেওয়া), বড় সাইজের দুটি সিদ্ধ আলু মসৃণ করে, স্ম্যাস করে নেওয়া পাউরুটি ১ পিস (পানিতে ভিজিয়ে, পানি ঝরিয়ে, নিংড়ে নেওয়া), গোলমরিচ টালা গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনেপাতা মিহি কুচি হাফ কাপ, লেবুর খোসা গ্রেট করা ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া হাফ চা চামচ, লবণ স্বাদ মতো, বিস্কুট গুঁড়া ২ কাপ ও ডিম ফেটানো একটি।

প্রস্তুত প্রণালি : বিস্কুট গুঁড়া আর ডিম ফেটানো ছাড়া ওপরের সব উপকরণ ভালোভাবে মাখিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণ দিয়ে কাবাবের আকারে বানিয়ে নিন। এখন বানানো কাবাবগুলো ফ্রিজে রাখুন ১ ঘণ্টার জন্য, এক ঘণ্টা পর ফ্রিজ থেকে বের করে ডিমে ডুবিয়ে বিস্কুটে গড়িয়ে নিন। এবার প্যানে কম আঁচে মাঝারি তেলে ভেজে তুলুন। ফ্রেশ সালাদ কিংবা পছন্দ মতো সসের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন।

ব্রোকলি ও স্পিনাস স্যুপ

উপকরণ : চিকেন স্টক ১ কাপ, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, পালংশাক (ছোট ছোট টুকরা) ১ কাপ, ব্রোকলি ছোট টুকরা আধা কাপ, লবণ ও মরিচ পরিমাণমতো, ময়দা সিকি কাপ, দুধ আধা কাপ এবং ১০০ মি.লি. রান্নার ক্রিম।

প্রস্তুত প্রণালি : একটি বড় পাত্রে চিকেন স্টেক, পেঁয়াজ, পালংশাক ও ব্রোকলি নিন। মিশ্রণটি চুলায় দিয়ে ফুটিয়ে নিন। এরপর চুলার জ্বাল কমিয়ে দিন। সবজি সিদ্ধ হওয়া পর্যন্ত রান্না করতে থাকুন। চিকেন স্যুপ, লবণ ও মরিচ যোগ করুন। অন্য একটি পাত্রে ময়দা এবং দুধ ভালো করে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি স্যুপের সঙ্গে মিশিয়ে দিন। ক্রমাগত নাড়তে থাকুন। সঠিক ঘনত্বে এলে নামিয়ে নিন। ঠাণ্ডা করে মিক্সচারে ব্লেন্ড করে নিন।


বিজয় নিশান উড়ছে ঐ…

© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!