রবিবার, ২৪ মার্চ ২০১৯, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

সিনেমার অভাবে ধ্বংসের পথে পাবনার হল ব্যবসা

নিজস্ব প্রতিনিধি : সুস্থ ধারার চলচ্চিত্র নির্মাণের মাধ্যমে হলে দর্শক টানতে না পারায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের সিনেমা হল। সেই সঙ্গে স্যাটেলাইটে ভারতীয় চ্যানেলের প্রভাব ও ভিডিও পাইরিসির কারণেও বড় পর্দার সিনেমা হলগুলো দর্শক খড়ায় ভুগছে।

হল বন্ধ হবার এই মিছিলে রয়েছে পাবনা জেলার হল ব্যবসা। ঘরে ঘরে রঙ্গিন টেলিভিশন ও পশ্চিমা সংস্কৃতির রঙ্গিন আলোর ঝলকানিতে সাধারন দর্শক এখন আর পয়সা ও সময় ব্যয় করে হলের বড় পর্দায় ছবি দেখার আগ্রহ পায় না।

তাছাড়া সিনেমা মুক্তির আগেই কিছু অসাধু ব্যবসায়ীরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় সিনোমাগুলো। যার কারণে দর্শক সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখতে চায় না।

তার নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে হল ব্যবসায়। পাবনা শহরে মোট ৪টি সিনোমা হল ছিল। এখন ওই হলগুলোর বেশিরভাগই অন্যকাজে ব্যবহৃত হচ্ছে।

শহরের মধ্যে বর্তমানে চালু রয়েছে মাত্র ১টি সিনেমা হল। এ হলও মাঝে মধ্যে বন্ধ থাকে দর্শকের অভাবে।

দিনে কয়েকটি শো চলার থাকলেও কোন শো-তেই দর্শক পরিপূর্ণ হয় না। ফলে যে কোনো সময় বন্ধ হয়ে যেতে পারে পাবনার একমাত্র রূপকথা সিনেমা হল।

গত ২০১৮ সালের ১০ এপ্রিল বন্ধ হয়ে যায় পাবনার ঐতিহ্যবাহী বীণা ও বাণী সিনেমা হল। তারও আগে বন্ধ হয়ে যায় পাবনার আরেক ঐতিহ্যবাহী অনন্ত সিনেমা হল।

দর্শকের সঙ্গে আলাপ করে জানা গেল, আগে তারা সিনেমা হলে এসে ঘরোয়া পরিবেশে অনেক ছবি দেখতেন এবং ভাল ভাল ছবি। বর্তমানে যে ছবি নির্মাণ করা হচ্ছে সে ছবিগুলো দেখে মজা পান না। ছবির গল্প কাহিনী কিছুই ভাল না। শুধু রং, ঢং।

জীবনের বাস্তবতা নেই, পরিবারের গল্প নেই, মানুষের মনের ভাব এইসব ছবিতে ফুটে উঠে না। ভাল ছবি নির্মিত হলে হলগুলোতে দর্শক আসবে বলে মনে করেন তারা। কারণ ভাল গল্প কাহিনীর ছবির অভাবেই দর্শকরা হলে যান না।


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৪:৪২
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:৫৯
    যোহরদুপুর ১২:০৫
    আছরবিকাল ১৬:২৮
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:১১
    এশা রাত ১৯:৪১
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!