সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০২:২১ পূর্বাহ্ন

স্ট্রোকের লক্ষণ এবং প্রতিকার

বিশ্ব স্ট্রোক দিবস।ওয়ার্ল্ড স্ট্রোক ক্যাম্পেইন সূত্রে জানা গেছে, প্রতি ৬ সেকেন্ডে বিশ্বে একজন মানুষ স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন। স্ট্রোকের প্রাথমিক কিছু লক্ষণ আছে, সময় মতো সেগুলোর চিকিৎসা করা গেলে স্ট্রোক প্রতিরোধ করা সম্ভব।

মস্তিষ্কে রক্ত সরবরাহ কম হলে মস্তিষ্কের সেলগুলো ক্ষয় হয়। তখন কথা বলতে সমস্যা হয়। স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। ওয়ার্ল্ড স্ট্রোক ক্যাম্পেইন সূত্র বলছে, সারা বিশ্বে এইডস, যক্ষা এবং ম্যালেরিয়া মিলিয়ে যত মানুষ মারা যায় তার চেয়ে বেশি মানুষের মৃত্যু হয় স্ট্রোকের কারণে। এটি নীরব মহামারীর আকার ধারন করেছে।

স্ট্রোকের লক্ষণ : যদি কারও শরীরের একদিকে অবশ বোধ হয় তাহলে সতর্ক হওয়া প্রয়োজন। যদি এক হাত অন্য হাতের চেয়ে দুর্বল লাগে এবং কথা বলতে আড়ষ্ঠতা বোধ হয় তাহলে অবশ্যই বিশেষজ্ঞর পরামর্শ নেওয়া উচিত। স্ট্রোকের লক্ষণ দেখা দিলে হঠাৎ করে শরীর ভারসাম্যহীন হয়। হাঁটতে গেলে পড়ে যায়। অথবা হঠাৎ করে তীব্র মাথাব্যথা দেখা দেয়। এগুলো স্ট্রোকের জন্য হতে পারে।

প্রতিকার : স্ট্রোক প্রতিরোধ করা যায় যদি তা আগেই নির্ণয় করা যায়। স্ট্রোকের লক্ষণগুলি দেখা দিলে যদি জরুরি ভিত্তিতে চিকিৎসা করানো যায় তাহলে স্ট্রোকে ক্ষতির পরিমাণ কমে আসবে।

এটা মনে রাখা দরকার স্ট্রোক সারভাইভারদের আবারও স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থাকে। প্রতি ৪ জনে ১ জন এই ঝুঁকিতে থাকেন।

স্ট্রোক প্রতিরোধের আরেকটা উপায় হলো ওষুধের মাধ্যমে উচ্চ রক্তচাপ, কোলেষ্টেরল নিয়ন্ত্রণে রাখা। সেই সঙ্গে ওজন কমানো, নিয়মিত শরীরচর্চা করা, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখা, ধূমপান ত্যাগ করা। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস


© All rights reserved 2018 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!