সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন

হিট স্ট্রোকের যত উপসর্গ

বৈশাখ মাস শুরু হতেই বেড়েছে গরমের তীব্রতা। গরম যত বাড়বে, হিট স্ট্রোকের ঝুঁকিও তত বাড়বে। এ কারণে গরমে ঘরের বাইরে বের হওয়ার আগে হিট স্ট্রোকের লক্ষণ বা উপসর্গগুলো জেনে রাখা উচিত।হিট স্ট্রোকের এসব উপসর্গ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। তা না হলে যেকোন দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। যেমন-

১. গরমে ঘাম বন্ধ হয়ে যাওয়া হিট স্ট্রোকের একটি অন্যতম লক্ষণ।

২. হিট স্ট্রোকের আগে ত্বক শুষ্ক আর লালচে হয়ে ওঠে।

৩. হিট স্ট্রোকের অন্যতম লক্ষণ হচ্ছে রক্তচাপ অস্বাভাবিক ভাবে কমে যাওয়া।

৪. এ সময় শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে প্রস্রাবের পরিমাণ অনেকটাই কমে যায়।

৫. হিট স্ট্রোকের সময় নাড়ির স্পন্দন অত্যন্ত ক্ষীণ ও দ্রুত হয়ে যায়।

৬. হিট স্ট্রোকের আগে মাথা ঝিমঝিম করে। সেই সঙ্গে শরীরে খিঁচুনিও দেখা দিতে পারে।

৭. হিট স্ট্রোকের আগে বমি বমি ভাব বা বমি হতে পারে।

৮. হিট স্ট্রোকের সময় শরীরের তাপমাত্রা ১০৪ ডিগ্রি ফারেনহাইট বা তার চেয়ে বেশি হতে পারে।

গরমের এই সময়ে হিট স্ট্রোক প্রতিরোধ কিছু বিষয় অনুসরণ করতে পারেন।যেমন-

১. হালকা ঢিলেঢালা পোশাক পড়ুন। হালকা রঙের পোশাক পড়লে সহজেই বাতাস চলাচল করতে পারবে। এ সময় খুব আঁটোসাটো পোশাক না পরাই ভাল।

২. হিট স্ট্রোক হলে আক্রান্তকে যত দ্রুত সম্ভব ঠাণ্ডা পরিবেশে সরিয়ে আনতে হবে। সম্ভব হলে হিট স্ট্রোকে আক্রান্তকে এয়ারকন্ডিশন ঘরে নিতে হবে।

৩. যে কোনও উপায়ে হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত ব্যক্তির শরীরের তাপমাত্রা কমানোর চেষ্টা করতে হবে। হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর পানিতে ভেজানো কাপড় দিয়ে বারবার মুছিয়ে দিতে হবে। সেই সঙ্গে ঘরের ফ্যান চালিয়ে রাখতে হবে।

৪. প্রাথমিক পর্যায়ে হিট স্ট্রোক প্রতিরোধের পর যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। সূত্র : জি নিউজ


    পাবনায় নামাজের সময়সূচি
    ওয়াক্তসময়
    সুবহে সাদিকভোর ০৩:৫৬
    সূর্যোদয়ভোর ০৫:২৩
    যোহরদুপুর ১২:০৫
    আছরবিকাল ১৬:৪৪
    মাগরিবসন্ধ্যা ১৮:৪৬
    এশা রাত ২০:১৬
© All rights reserved 2019 newspabna.com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!