বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০৬:১৬ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

আজো সমুদ্রে ঘুরে বেড়াচ্ছে ২৬৮ বছরের তিমি!

ব্রিটিশরা প্রায় ২০০ বছর শাসন করে ভারতীয় উপমহাদেশ। সে সময় একটি তিমি জন্ম নেয় সমুদ্রে। বৃটিশ শাসনের ‘সাক্ষী’ হয়ে সমুদ্রের গভীরে আজো ঘুরে বেড়াচ্ছে সেই ‘প্রাচীন’ তিমি।
একদল বিজ্ঞানী দাবি করেছেন, পৃথিবীর কোনো সমুদ্রে হয়তো পাওয়া যেতে পারে ২৬৮ বছর বয়সের কোনো তিমি।

সম্প্রতি একটি গবেষণায় বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, বেশ কিছু প্রাণী যতদিন বাঁচার কথা তার থেকেও বেশি দিন বাঁচে। সেই গবেষণাতেই বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, বোহেড (ধনুকের মতো মাথা) তিমিরা প্রায় ২৬৮ বছর বাঁচতে পারে। বোহেড তিমিরা আর্কটিক এলাকায় বসবাস করে।

এখন পর্যন্ত যদিও ১৭৫১ সালের কোনো তিমি খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে ২০০৭ সালে একটি তিমি পাওয়া যায় যেটির বয়স ছিল ২০০ বছর। এছাড়াও একটি বোহেড তিমি পাওয়া যায়, যেটির বয়স ছিল ২১১ বছর। তার চোখের জলের অ্যামাইনো অ্যাসিড থেকে বয়স নির্ণয় করা হয়।

অস্ট্রেলিয়ার একদল বিজ্ঞানী জেনেটিক ‘ক্লক’ ব্যবহার করে হিসেব করে দেখেছেন, যে তিমিটির বয়স ২১১ বছর ছিল, সেটি আরো অন্তত ৬০ বছর বাঁচতে পারে।

অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরায় কমনওয়েল্থ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ অর্গানাইজেশনের বিজ্ঞানী বেঞ্জামিন মেনে জানিয়েছেন, ৪২টি জিন ও একটি রাসায়নিক পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে এই বয়স নির্ণয়ের কাজে, যাকে বলা হয় মিথিলেশন। এই পদ্ধতিতে কোনো প্রাণীর জীবনকাল কত হতে পারে তা নির্ণয় করা যায়। সেখানেই তারা দেখেছেন একটি বোহেড তিমি প্রায় ২৬৮ বছর বাঁচতে পারে।

error20
fb-share-icon0
Tweet 10
fb-share-icon20


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
error: Content is protected !!