রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

আলো ছড়াল পাবনার সাত দৃষ্টি প্রতিবন্ধী

image_pdfimage_print

চোখের আলো না থাকলেও এবারের এইচএসসি পরীক্ষায় কৃতিত্বপুর্ন ফলাফল অর্জন করেছে পাবনার সাত জন্ম অন্ধ শিক্ষার্থী। শ্রুতি লেখকের সহায়তায় অন্য সব শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তারা এই সফলতা অর্জন করে।

পাবনার মানবকল্যাণ টাষ্ট্রের সহায়তায় পাবনা সরকারি শহীদ বুলবুল কলেজ এবং সেন্ট্রাল গার্লস হাই স্কুল এবং পাবনা কলেজ কেন্দ্র থেকে পরীক্ষা দেয়।

পাবনার বিশিষ্টজন অন্ধ ৭ এই শিক্ষার্থীর সফলতাকে অভিনন্দন জানিয়ে তাদেরকে সহায়তা করতে সামর্থ্যবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন।

যারা কৃতিত্বপুর্ন ফলাফল করেছে তারা হলেন চট্টগ্রাম জেলার রবিউল ইসলাম, তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ৫০ পয়েন্ট।

নরসিংদী জেলার পেতিপলাশি গ্রামের মোঃ আবদুল্লাাহ, তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ৫০ পয়েন্ট।

ঢাকা জেলার সাভার উপজেলার ভবানিপুর গ্রামের মোঃ রবিউল করিম রবি, তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ৫০ পয়েন্ট।

মাদারীপুরের বাগমাড়া গ্রামের সুমন আহম্মেদ চৌধুরী, তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ২৫ পয়েন্ট।

পাবনা সাঁথিয়া উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের মোঃ জামিল হোসেন, তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ১৭ পয়েন্ট।

পাবনা সুজানগর দুর্গাপুরের মোঃ মুনসুর আলী তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ৫০ পয়েন্ট এবং পাবনার চাটমোহর উপজেলার গৌরনগর গ্রামের মাহবুবুল আলম, তিনি পেয়েছেন ৪ দশমিক ২০ পয়েন্ট।

এই ৭ মেধাবী জন্ম থেকেই অন্ধ। তারা পাবনার মানব কল্যান ট্রাষ্টের আশ্রয়ে থেকে বিনা খরচে এইচএসসি পরীক্ষা দেয়।

অন্ধ শিক্ষার্থী মাহবুব আলম বলেন, অন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শ্রুতি লেখকের সহায়তায় একই প্রশ্নে তাদের পরীক্ষা দিতে হয়। অনেক সময় আমরা সঠিক বলে দিলেও শ্রুতি লেখক লেখতে ভুল করে বসে। এতে মার্ক কমে যায়।

সে আরও জানান, শিক্ষার আলোয় আলোকিত হয়ে দেশের সমস্ত অন্ধদের সাহায্য করাই তার মুল লক্ষ্য।

পাবনা মানব কল্যাণ ট্রাষ্ট্রের চেয়ারম্যান প্রফেসর মো: আবুল হোসেন বলেন, অন্ধদের লেখপড়ার জন্য প্রয়োজন ব্রেইল পদ্ধতি। অথচ দেশের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ সুযোগ নেই।

এখন পরীক্ষার জন্য প্রয়োজন শ্রুতি লেখকের। দরিদ্র এসব অন্ধদের শ্রুতি লেখক সম্মানী তো দুরের কথা লেখা পড়ার করার নুন্যতম আর্থিক ব্যয় নির্বাহ করারও সক্ষমতা নেই।

তার পরেও থেমে থাকেনি এসব সংগ্রামী দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর শিক্ষা জীবন। তিনি আরও বলেন, এই ছয় জন পরীক্ষার্থীর মত আরো প্রায় ৫২ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী পাবনার মানব কল্যান ট্রাষ্টে থেকে ব্রেইল পদ্ধতিতে লেখা পড়া করছেন।

এ প্রতিষ্ঠান থেকে ৯ম শ্রেণীতে ৬ জন, ১০ম শ্রেণীতে ৭জন, চলতি একাদশ শ্রেণীতে ৫ জন, এমএ তে ২ জন সহ বিভিন্ন শ্রেনীতে তাদের শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!