আ.লীগ নেতা হত্যা, মামলা তুলে নিতে হুমকি

আ.লীগ নেতা হত্যা : মামলা তুলে নিতে হুমকি

আ.লীগ নেতা হত্যা : মামলা তুলে নিতে হুমকি

শহর প্রতিনিধি : পাবনা সদর উপজেলার গয়েশপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিমের হত্যাকারীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুলিশ খুনিদের গেফতার না করে নিরব ভূমিকা পালন করছেন। আর খুনিরা মামলা প্রত্যাহারের জন্য নিহত রহিমের পরিবারের সদস্যদের হুমকি দিচ্ছে।

সোমবার (১৩ জুন) দুপুরে পাবনা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে আব্দুর রহিমের স্ত্রী এ অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিহত আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহিম বিশ্বাসের ছোট ভাই আল আমিন বিশ্বাস ও রহিমের বিধবা স্ত্রী জোসনা খাতুন।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে আরো অভিযোগ করা হয়, মামলা প্রত্যাহার না করায় নিহত রহিমের ৫ম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ে রত্নাকে স্কুলে যেতে বাধা দিচ্ছেন আসামিরা। এই মামলার ৩ নং আসামির স্ত্রী পয়দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিউলী খাতুন রত্নাকে বলেন, মামলা প্রত্যাহার না হলে তুমি আর স্কুলে এসো না।

গত ২২ মে একটি শালিস বৈঠকের জের ধরে প্রকাশ্যে বাজারের মধ্যে আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুর রহিমকে কুপিয়ে হত্যা করে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা। এই হত্যাকাণ্ডের পর রহিমের ছোট ভাই আল আমিন বিশ্বাস বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে পাবনা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্ত আসামিরাও আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হওয়ায় গত ২২ দিনেও তারা গ্রেফতার হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে নিহত রহিমের মা রহিমা খাতুন, ৩ নাবালক সন্তানসহ স্ত্রী জোসনা খাতুন, ভাই আল আমিন হোসাইন এবং চাচা ইউপি সদস্য আমজাদ হোসেন উপস্থিত ছিলেন।