ঢাকামঙ্গলবার , ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২

ইউক্রেন নিয়ে পুতিনের সঙ্গে বৈঠকে রাজি বাইডেন

News Pabna
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২ ৮:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

পূর্ব ইউক্রেনের বিদ্রোহী অঞ্চলগুলোকে স্বীকৃতি দেওয়ার কথা ভাবছে রাশিয়া। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ওই অঞ্চলগুলোকে স্বীকৃতি দেওয়া যায় কি না, সোমবারের পর তিনি এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

বার্তাসংস্থা এপি জানায়, সোমবার রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের একটি বৈঠকে পুতিন এ কথা বলেন।

বৈঠকে শীর্ষ রুশ কর্মকর্তাদের অনেকেই বিচ্ছিন্নতাবাদী অঞ্চলগুলোকে স্বীকৃতি দেওয়ার পক্ষে যুক্তি দিয়েছেন। অবশ্য এখনই স্বীকৃতি না দেওয়ার পক্ষে মত দিয়েছেন কেউ কেউ।

ক্রেমলিন থেকে এমন এক সময়ে এই বার্তা এলো যখন পশ্চিমা শক্তিগুলো দাবি করছে গণতন্ত্রের ওপর আক্রমণের অজুহাত হিসেবে পুতিন যে কোনো সময় ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে। যদিও মস্কো বারবার এই দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে।

বিদ্রোহী অঞ্চলগুলোকে স্বীকৃতি না দিতে পুতিনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ইউরোপের নেতৃবৃন্দ। বিচ্ছিন্নতাবাদী অঞ্চলগুলোকে স্বীকৃতি দিলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হবে বলে ইইউর ফরেন পলিসির চিফ জোসেপ বোরেল ইতোমধ্যে হুমকি দিয়েছেন।

ব্রাসেলসে ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘স্বীকৃতি দিলে আমি নিষেধাজ্ঞার প্রস্তাব তুলব, ইইউ মন্ত্রীরা সিদ্ধান্ত নেবেন।’

ক্রেমলিন জানায়, স্বীকৃতি পেতে বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের আবেদনের প্রতিক্রিয়ায় পুতিন শিগগির একটি চুক্তিতে সই করবেন বলে তিনি জার্মানি ও ফ্রান্সের নেতাদের জানিয়েছেন।

তবে চুক্তিতে কী থাকবে তা বিশদভাবে বলা হয়নি।

সোমবার পূর্ব ইউক্রেনের ওই অঞ্চলগুলোর নেতারা টেলিভিশনে দেওয়া বিবৃতিতে পুতিনের কাছে স্বীকৃতি পেতে একটি চুক্তিতে সই করার অনুরোধ জানান। ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর হামলা থেকে রক্ষা পেতে তারা সহায়তা প্রার্থনা করেন।

তবে ইউক্রেন সরকার হামলার কথা অস্বীকার করেছে এবং রাশিয়া বিদ্রোহীদের উস্কানি দিচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছে।

পুতিনের আজকের বক্তব্যের পর ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট দেশটির শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন।