ঢাকাবৃহস্পতিবার , ২৮ এপ্রিল ২০২২

ঈদের সামনে ভাঙ্গুড়ায় চেক বই সংকটে সোনালী ব্যাংক

News Pabna
এপ্রিল ২৮, ২০২২ ৯:৩১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ভাঙ্গুড়া প্রতিনিধিঃ পাবনার ভাঙ্গুড়ায় প্রায় ২ মাস ধরে সেবা গ্রহীতা বা গ্রহকদের চেক বইয়ের সংকটে ভুগছে সোনালী ব্যাংক লিঃ ভাঙ্গুড়া বাজার শাখা। ফলে তারা সেবা গ্রহীতাদের চেক বই সরবরাহ করতে না পেরে তাদের নিকট থেকে আবেদন নিয়ে ১টি পাতা করে চেক প্রদান করেছেন সোনালী ব্যাংক ভাঙ্গুড়া বাজার শাখা কর্তৃপক্ষ।

এতে করে সেবা নিতে আসা গ্রাহক একবার চেক বইয়ের আবেদন নিয়ে চেক প্রদানকারী কর্মকর্তার নিকট আবার টাকা উত্তোলনের জন্য ব্যাংকের কাউন্টারে ধরনা দিতে হচ্ছে। এতে সেবা গ্রহীতাদের মধ্যে বৃদ্ধ ও সাধারণ মানুষ অনেকেই হতাশা প্রকাশ করেছেন।

সোনালী ব্যাংক লিঃ ভাঙ্গুড়া বাজার শাখার একাধিক কর্মকর্তার সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রায় ২ মাস ধরে চেক বই তাদের চাহিদা আনুয়ায়ী উর্ধতন কর্তৃপক্ষ সরবরাহ না করায় তারা তাদের গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী চেক বই সরবরাহ করতে পারছেন না।

তবে গ্রহকরা টাকা উত্তোলন করতে আসলে তাদের সোনালী ব্যাংক লিঃ এর নির্ধারিত ফরমেটে আবেদন নিয়ে স্ব-স্ব হিসাবে এন্টি করে তদার পর তাদের অর্থ প্রদান করা হচ্ছে। তবে টাকা তুলতে আসা সাধারণ মানুষকে অতিরিক্ত আবেদনের ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে।

জানা গেছে, সোনালী ব্যাংক ভাঙ্গুড়া বাজার শাখার অনুকুলে প্রায় ২৮ হাজার সঞ্চয়ী হিসাব রয়েছে। তদুপরি সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেতন ভাতা, পেনশন, বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী, স্বায়ত্বশাষিত প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের হিসাব ও লেনদেন করে থাকে এই শাখা। কিন্তু চেক বইয়ের পাতা শেষ হওয়ায় অনেকে টাকা উত্তোলন করতে এসে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।

এ ব্যপারে চেক সোনালী ব্যাংক ভাঙ্গুড়া শাখার প্রদানকারী মো. নুরুল ইসলাম (এসএস-২) জানান, প্রায় ২ মাস ধরে চেক বই প্রাপ্তিতে সমস্যা হচ্ছে।

চেক বইয়ের ঘাটতির কথা স্বীকার করে সোনালী ব্যাংক লিঃ ভাঙ্গুড়া বাজার শাখার ব্যবস্থাপক ও প্রিন্সিপাল অফিসার মোঃ জিল্লুর রহমান জানান, বিয়ষটি ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। ঈদের পর এ সমস্যা আর থাকবে না।