ঈদ ও রথযাত্রা ঘিরে সতর্কবস্থানে পাবনার প্রশাসন

hP4M5nx3Bbfkপাবনা জেলা প্রতিনিধি:  রাজধানীর গুলশানে বীভৎস হামলার ঘটনার পর পাবনার প্রশাসন যে কোন সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে। এ ব্যাপারে তারা জেলার সকল শ্রেনী পেশার মানুষের সহযোগিতা চেয়েছেন।

রোববার পাবনা সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক রেখা রানী বালোর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় জেলার আইন শৃঙ্খলা নিয়ে এ আহবান জানানো হয়।

সভায় পুলিশ সুপার আলমগীর কবির জানান, জেলা জুড়ে পুলিশ র‌্যাবসহ সকল গোয়েন্দা সংস্থা সর্তক অবস্থানে আছেন। খুব প্রয়োজন ব্যাতীত পুলিশ সদস্যদের সকল ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

বিশেষ করে ঈদুল ফিতরের দিন জেলা শহর ব্যাপক পুলিশের কঠোর নজরদারীতে থাকবে। কারণ একই দিনে, সনাতন ধর্মালম্বীদের রথ যাত্রা অনুষ্ঠিত হবে। তিনি উপস্থিত হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দকে আশ্বস্ত করে বলেন, আপনারা র্নিবিঘ্নে রথ যাত্রা পালন করবেন কোন অসুবিধা হবে না।

এমনিতে সাম্য আর শান্তির শহর পাবনা তারপরও পুলিশ ও র‌্যাব থাকবে সর্তক অবস্থানে। মতবিনিময় সভায় পুলিশ সুপার পাবনায় বিদেশীদের অবস্থান ও নিরাপত্তা প্রসংগে বলেন, তাদের জন্য আগে থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু বর্তমান অবস্থায় উক্ত বিদেশীদের জন্য কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। এমনকি লালন শাহ সেতুর পশ্চিম পাড়ে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের সহযোগিতায় দক্ষিণ বঙ্গ থেকে আসা সকল যানবাহন তল্লাশীর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

মতবিনিময় সভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) অতিরিক্ত জেলা প্রশসক (শিক্ষা আইসিটি) অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) যুগ্ন পরিচালক এনএসআই, র্যাব কমান্ডার, আনসার বাহিনীর জেলা প্রধান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ পরিচালক, বাংলাদেশ টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি, পাবনা প্রেসক্লাবের সম্পাদক, ডিজিএফআই প্রতিনিধি ও জেলা ও উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ও জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।