বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ঈশ্বরদীতে গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা

image_pdfimage_print

kill_3_307429445-230x150স্টাফ রিপোর্টার ঈশ্বরদী : ঈশ্বরদীতে এক গৃহবধূকে গায়ে পেট্রল ঢেলে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর থেকেই গৃহবধূর স্বামী পলাতক রয়েছে।

রোববার (১ মে) রাতে উপজেলার পাকশীর দিয়ার বাঘইল গ্রামের গৃহবধূ সালমা বেগমকে প্রথমে গলায় গামছা পেঁচিয়ে পরে শরীরে পেট্রল ঢেলে পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (২ মে) রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান বলে জানান ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিমান কুমার দাশ।

ওসি আরো জানান, ঘটনার পর থেকে সালমার স্বামী সাহাবুল আলম পলাতক রয়েছে। তিনি নেশাখোর বলে স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন।

সালমার ছোট ভাই সুমন জানান, সালমা বেগমের সঙ্গে পাঁচ বছর আগে সাহাবুলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর এক ছেলে ও এক মেয়ের জন্ম হয়। সম্প্রতি সালমা ইপিজেডের এ্যাবা কোম্পানিতে চাকরি নেন।

বেতনের টাকায় দুজনের সংসার ভালোই চলছিল। এর মধ্যে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বেতনের টাকা নিয়ে ঝগড়া-বিবাদের সৃষ্টি হয়। সালমা কিছু টাকা ভবিষ্যতের আশায় ব্যাংকে জমা রাখেন। এ টাকা নিয়ে সাহাবুলের সঙ্গে সালমার বিবাদ হয়।

সুমনের দাবি, এরই অংশ হিসেবে রোববার রাতে সালমাকে কৌশলে বাড়ির কাছে দোকানে ডেকে নিয়ে যান সাহাবুল। সুযোগ বুঝে সালমার গলায় গামছা পেঁচিয়ে ও শরীরে পেট্রল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দিয়ে সাহাবুল পালিয়ে যান।

পরে বাড়ির লোকজন সালমাকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করেন। সেখানেই রাত সাড়ে ৯টায় মারা যান সালমা।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!