শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ঈশ্বরদীতে চলতি বোরো মৌসুমে চাল সংগ্রহ অভিযান সফল হচ্ছে না

image_pdfimage_print

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : পাবনার ঈশ্বরদীর ৫৮১ জন তালিকাভূক্ত চাউলকল মালিকদের মধ্যে সরকারি খাদ্য গুদামে চাল সরবরাহের জন্য সরকারের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে মাত্র ৪৫ জন মিলার।

ফলে চলতি বোরো মৌসুমে ঈশ্বরদীর দুটি সরকারি খাদ্য গুদামে চাল সংগ্রহ অভিযান সফল হচ্ছে না।

এদিকে ঈশ্বরদী উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জানিয়েছেন ৫৩৬ জন চাউলকল মালিকদেরকে কালো তালিকাভূক্ত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

বাজারে চালের দাম বেশী থাকায় এসব চাউলকল মালিকরা সরকারের সাথে গুদামে চাল সরবরাহের জন্য চুক্তিবদ্ধ হননি।

ঈশ্বরদী উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক জয়নাল আবেদিন জানান, এসব চাউলকল মালিকদের বিরুদ্ধে শাস্তি হিসেবে আগামী চার মৌসুম অর্থাৎ ২ বছর তারা সরকারি খাদ্য গুদামে চাল সরবরাহ করতে পারবে না এমন শাস্তির সুপারিশ করা হয়েছে।

এছাড়া চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরও যদি কোন চাউলকল মালিক চাল সরবরাহ না করে তবে, তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা স্বরূপ ২ মৌসুমে তারা চাল সরবরাহ করতে পারবে না এমন শাস্তির সুপারিশ করা হয়েছে।

খাদ্য নিয়ন্ত্রক কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, ঈশ্বরদী সরকারি খাদ্য গুদাম ও মূলাডুলি কেন্দ্রীয় খাদ্য সংরক্ষণাগারের জন্য চলতি বোরো মৌসুমে মোট ১৮,৪১২ মেট্রিকটন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়।

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ২রা মে হতে চাল সংগ্রহের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। চলবে ৩১শে আগষ্ট পর্যন্ত।

গত ১১ই জুলাই উপজেলা চেয়ারম্যান মোকলেছুর রহমান মিন্টু এবং নির্বাহী অফিসার নাছরিন আক্তার প্রথম বোরো মৌসুমের চাল সংগ্রহের উদ্বোধন করেন।

উপজেলা চাউলকল মালিক গ্রুপের সভাপতি ফজলুর রহমান মালিথা জানান, তাদের কেন্দ্রীয় সংগঠন অটো মেজর হাসকিং মালিক সমিতির পক্ষ থেকে প্রতি কেজি চালের দাম বস্তায় ৩৮ টাকা এবং চুক্তি মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য প্রস্তাব করা হয়েছিল।

কিন্তু সরকার চুক্তির মেয়াদ বৃদ্ধি করলেও চালের দাম পুনঃনির্ধারণ করেনি। ফলে লোকসান দিয়ে মিল মালিকরা সরকারি গুদামে চাল সরবরাহে অসম্মতি জানিয়েছেন।

ঈশ্বরদী সরকারি গুদামের কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান খান জানান, ওই গুদামে ২৭ জন মিল মালিক চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এপর্যন্ত মাত্র ৫৭ মেট্রিকটন চাল সংগ্রহ হয়েছে বলে তিনি জানান।

অপরদিকে মূলাডুলি গুদামে ১৮ জন মিল মালিক চুক্তিবদ্ধ হযেছেন বলে জানা গেছে।

মিল মালিকদের সাথে সরকারের চালের মূল্য নির্ধারণ নিয়ে জটিলতার কারণে ঈশ্বরদীর দুটি খাদ্য গুদামে সরকারের চাল সংগ্রহ অভিযান মূলত ব্যর্থ হতে চলেছে।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!