ঈশ্বরদীতে হত্যা মামলার আসামি খুন

Ishurdi_011ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : পাবনার ঈশ্বরদীতে যুবদল নেতা মুরাদ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত পলাতক আসামি বিশাল আহমেদকে (২৩)  পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) দিবাগত রাত ১১টার দিকে এ হামলার ঘটনা ঘটে। শনিবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে বিশালের মৃত্যু হয়। নিহত বিশাল ঈশ্বরদী পৌর এলাকার ফতে মোহাম্মদপুর লোকোসেড এলাকার আবু বক্কারের ছেলে।

ঈশ্বরদী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রমজান আলী জানান, ২০১৫ সালের ৩১ মে ঈশ্বরদী উপজেলা যুবদল নেতা মুরাদকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার এজাহারভুক্ত অন্যতম আসামি ছিলেন বিশাল। এ ঘটনার পর থেকে দীর্ঘদিন পলাতক ছিলেন তিনি। এরই এক পর্যায়ে শুক্রবার রাতে ঈশ্বরদীতে নিজ এলাকায় ফিরে আসেন বিশাল। এ খবর জানতে পেরে মুরাদের লোকজন বিশালকে লোকোসেড পানির ট্যাংকির কাছে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করে ফেলে রেখে যায়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বিশালকে উদ্ধার করে প্রথমে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় শনিবার সকালে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিশালকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরো জানান, নিহত বিশালও যুবদলের কর্মী ছিলেন। তার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় বেলা ২টা পর্যন্ত থানায় কোনো মামলা দায়ের হয়নি। মামলা দায়েরের পর আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।