ঈশ্বরদীতে যুবদলকর্মী হত্যা মামলায় যুবলীগকর্মী গ্রেপ্তার

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : পাবনার ঈশ্বরদীতে যুবদলের কর্মী মুরাদ হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি যুবলীগের কর্মী আবুল কাশেম ওরফে লোলো (২৮) গ্রেপ্তার হয়েছেন। র‌্যাব-১২ পাবনা ক্যাম্পের সদস্যরা শহরের ফতে মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে গত বুধবার তাঁকে গ্রেপ্তার করেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে র‌্যাবের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আবুল কাশেম তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী এবং ঈশ্বরদীতে মুরাদ হত্যা মামলার আসামি। তাঁকে গ্রেপ্তারের জন্য অনেক দিন ধরে চেষ্টা করছিল র‌্যাব।

পাবনা র‌্যাব কর্তৃক ওয়ারেন্টভূক্ত আসামী ঈশ্বরদীর শীর্ষ সন্ত্রাসী লোলো গ্রেফতার

গত বুধবার সকালে ফতে মোহাম্মদপুরের বিহারীবাজার–সংলগ্ন নিজ বাসায় অবস্থান করছিলেন আবুল কাশেম। খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল সেখানে অভিযান চালায়। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে র‌্যাবের হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় সে বিভিন্ন তথ্য দিয়েছে।

এলাকাবাসী ও দলীয় সূত্রে জানা গেছে, আবুল কাশেম লোলো জাতীয় পার্টি ঈশ্বরদী পৌর কমিটির সাবেক সভাপতি প্রয়াত মঞ্জুরুল আলমের ছেলে ও যুবলীগের সক্রিয় কর্মী।