সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৪২ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ঈশ্বরদীতে লিচুর দ্বিগুণ দাম, চাষিদের মুখে হাসি

ঈশ্বরদীতে লিচুর দ্বিগুণ দাম, চাষিদের মুখে হাসি

image_pdfimage_print

বার্তাকক্ষ : পাবনার ঈশ্বরদীতে বাগানের গাছে গাছে ঝুলে আছে লাল ও সবুজ রঙের লিচু। বাজারে লিচু বিক্রিও শুরু হয়েছে। ফলন কিছুটা কম হলেও মৌসুমের শুরুতে এবার লিচু বিক্রি করে প্রায় দ্বিগুণ দাম পেয়ে হাসি ফুটেছে চাষিদের মুখে।

স্থানীয় বাজার ঘুরে দেখা গেছে, লিচুর বাগানে পাইকারি ক্রেতারা প্রতি হাজার লিচু কিনছেন ১ হাজার ৮০০ থেকে ২ হাজার টাকায়। খুচরা বাজারে তা বিক্রি হচ্ছে সর্বোচ্চ ২ হাজার ৩০০ টাকায়। যা গতবারের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ। ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন জেলার পাইকারি ক্রেতারাও লিচু কিনতে ঈশ্বরদীতে আসছেন। অনেক চাষি ফলন্ত লিচুগাছও বিক্রি করছেন। জয়নগর শেখেরদাঁড় গ্রামের লিচুচাষি আবুল হাশেম বলেন, তিনি ফলন্ত তিনটি লিচুগাছ বিক্রি করেছেন ৩০ হাজার টাকায়।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও পৌর এলাকায় এ বছর ৩ হাজার ৫০ হেক্টর জমিতে লিচুর আবাদ হয়েছে।

উপজেলার সলিমপুর, সাহাপুর, লক্ষ্মীকুণ্ডা ও দাশুড়িয়া ইউনিয়নে লিচু আবাদের পরিমাণ সবচেয়ে বেশি। মূলত বোম্বাই জাতের লিচুর আবাদ সবচেয়ে বেশি হয়। এ ছাড়া আছে চায়না-১, চায়না-২, চায়না-৩ ও মোজাফফর নামের লিচুর জাত।

সলিমপুর ইউনিয়নের মিরকামারি গ্রামের লিচুচাষি ইমরান হোসেন বলেন, বাজারে লিচুর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে, দামও বেশি। এরই মধ্যে ১২ হাজার লিচু তিনি বিক্রি করেছেন ২১ হাজার টাকায়।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রওশন জামাল বলেন, এখানে প্রায় ৩ লাখ লিচুগাছ রয়েছে। ফলন্ত প্রতিটি গাছে ৩ হাজার থেকে ৩০ হাজার পর্যন্ত লিচু ধরে। এবার গতবারের তুলনায় গাছে মুকুল কম এলেও সময়মতো বৃষ্টি হওয়ায় মুকুল ও লিচুর গুটি ঝরে পড়েনি। কীটপতঙ্গের আক্রমণও কম ছিল।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!