শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০৭:০৪ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ঈশ্বরদীর পৌর মেয়র মিন্টুকে অফিসে যেতে বাধা -প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

image_pdfimage_print

পাবনা প্রতিনিধি :হাইকোর্ট হতে সদ্য জামিনপ্রাপ্ত ভুমিমন্ত্রীর জামাই, পাবনার ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ মিন্টুকে বুধবার পৌরসভায় ঢুকতে বাধা সৃষ্টি করেছে একদল সন্ত্রাসী।

মেয়র এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেছেন, বাধা সৃষ্টিকারী সন্ত্রাসীরা ভুমিমন্ত্রী, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুর রহমান শরীফ এমপি‘র আর্শিবাদপুষ্ঠ যুবলীগের ক্যাডার।

শ্বশুড়-জামাই‘র নেতৃত্বের কোন্দল ও আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে একটি পুকুরের মাছ লুটের মামলায় হাইকোট থেকে জামিন নিয়ে পৌর মেয়র বুধবার (১২ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পৌরসভায় অফিস করতে যাবার সময় পোষ্ট অফিস মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।

বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তিনি আইন শৃংখলা বাহিনীর সহায়তায় পৌরসভাতে পৌঁছেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে দুপুর ২টার দিকে পৌরসভা কার্যালয়ে মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু এক সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, আমি চরম নিরাপত্তাহীনতা ও প্রাণনাশের হুমকীর মুখে আছি।

তিনি বলেন ‘রেলওয়ে থেকে লীজ নিয়ে এবং পুজি খাটিয়ে যারা মাছ চাষ করছিল, দূর্বৃত্তরা তাদের পুকুরের মাছ লুট করে এবং আমাকে প্রধান আসামী করে গত ২ জুলাই রাতে ঈশ্বরদী থানায় মিথ্যা মাছ লুটের মামলা দায়ের করেন ঈশ্বরদী পৌর যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন বিপ্লব।

এই মামলায় উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক শরিফুল হাসান আরিফ, পৌর আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক সানোয়ার হোসেন, পৌর যুবলীগের সাবেক সভাপতি সানোয়ার হোসেন লাবু উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের বিশ্বাস, পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম রকি, ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি রবি মোল্লা সহ ১৮ জন যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মির নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরো কিছু মানুষকে আসামী করা হয়।

তিনি বলেন, ১০ জুলাই হাইকোর্ট থেকে জামিন নিয়ে আমি আজ ১২ জুলাই বুধবার পৌরসভায় কর্মস্থলে আসার সময় বিপুল সংখ্যক সন্ত্রাসী আমার গতিরোধ করে গালিগলাজ করে ও মহড়া দেয়।

এ সময় আমি ভীত সন্ত্রস্ত্র হয়ে পড়ি। সন্ত্রাসীদের ইন্ধনদাতা উপজেলা চেয়ারম্যান ইউনুস আলী মিন্টুকে সন্ত্রাসীদের অদূরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় বলে মেয়র অভিযোগ করেন।

মেয়র বলেন, ঘটনার সময় আমার সহধর্মীনি, জেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মাহজেবিন শিরিণ পিয়া সাথে ছিলেন।

আইন শৃংখলা বাহিনীর সহযোগীতায় আমি পৌরসভাতে আসতে পেরেছি।

এ সময় জামিনপ্রাপ্ত মেয়র মিন্টুকে অভিনন্দন জানাতে পৌরসভা কর্মকর্তা-কর্মচারী, কাউন্সিলরসহ বিভিন্ন শ্রেনী-পেশার তাকে সম্বর্ধনা জানাতে পৌর কার্যালয়ে আসেন।

এই দুর্বৃত্ত কারা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে মেয়র মিন্টু বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে লুকিয়ে থাকা একটি চক্র।

যারা মামননীয় প্রধানমন্ত্রীর অর্জনকে নষ্ট এবং দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে। মেয়র ঈশ্বরদী উদ্ভুত পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!