ঈশ্বরদী পৌর বিএনপি এক যুগ পর ঐক্যবদ্ধ!

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : দীর্ঘ এক যুগ পর বিভেদ ভুলে ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির উদ্যোগে  সোমবার (৩১ মে) ঈশ্বরদীতে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠান ঐক্যবদ্ধভাবে পালিত হয়। নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করে ঈশ্বরদী পৌর বিএনপি।

দিবসটি পালন উপলক্ষে  সকাল সাড়ে সাতটায় সংগঠনের পক্ষ থেকে শহরের রেলগেট দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমবেত হওয়ার পর জাতীয়, দলীয় ও শোক পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

বেলা ১১টায় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত হয় শোকসভা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পৌর কমিটির সভাপতি আকবর আলী বিশ্বাস, সাবেক সভাপতি মকলেছুর রহমান, পৌর কমিটির জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি কে এম আক্তারুজ্জামান, জাহিদুর রহমান বিশ্বাস, সুমার খান, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্রদল নেতা মাহাবুবুর রহমান, পৌর ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ইমরুল কায়েস প্রমুখ।

শোকসভা শেষে মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ দোয়ার আয়োজন করা হয়। বিকেল চারটায় শহরের বাবুপাড়ায় অনুষ্ঠিত হয় জিয়াউর রহমানের জীবন ও কর্মের ওপর আলোচনা সভা। এসব অনুষ্ঠানে পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ড ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা অংশ নেন।

বিএনপির নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন নেতা জানান, বিগত জাতীয় সংসদ, উপজেলা, পৌর নির্বাচন ও কমিটি গঠন নিয়ে ২০০৪ সাল থেকে তৎকালীন বিএনপি নেতা মকলেছুর রহমান, বর্তমান পৌর সভাপতি আকবর বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টু, কে এম আক্তারুজ্জামানসহ কয়েকজনের অন্তঃকলহের সৃষ্টি হয়।

ফলে দলে বিভেদ ও সাংগঠনিক শূন্যতা সৃষ্টি হয়। তবে এবারের মহান স্বাধীনতা দিবসে বিরোধপূর্ণ নেতারা একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার করেন। সোমবার সেই অঙ্গীকারের অংশ হিসেবে সব পক্ষ যৌথভাবে জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালন করে। বিভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে নেতার মৃত্যুবার্ষিকী পালন করায় তৃণমূলের কর্মীরা সন্তোষ প্রকাশ করেন।