সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

এই শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়াবহ রুগ্নতার ঝুঁকিতে শিশুরা

image_pdfimage_print

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফ সতর্ক করেছে, যে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দক্ষিণ এশিয়ায় অতিরিক্ত ৩৯ লাখ শিশু তীব্র রুগ্নতার শিকার হতে পারে।

ইউনিসেফ এই পরিসংখ্যানটি দিচ্ছে মেডিক্যাল জার্নাল ল্যানসেটে প্রকাশিত এক সমীক্ষার ভিত্তিতে।

ল্যানসেটের ওই সমীক্ষায় বলা হয়, করোনাভাইরাস মহামারির আর্থ-সামাজিক প্রভাবের কারণে বিশ্ব জুড়ে ৬৭ লাখ শিশু তীব্র রুগ্নতার শিকার হবে। এর অর্ধেক শিশুই হবে দক্ষিণ এশিয়ায়।

এছাড়া বিদ্যমান বাস্তবতায় ক্রমবর্ধমান অপুষ্টির পরিণতি হবে দীর্ঘমেয়াদী। এটি একটি প্রজন্মকে বিপদের মুখে ঠেলে দেবে।

এই তীব্র রুগ্নতাকে খুবই ঝুঁকিপূর্ণ বলে অভিহিত করছে ইউনিসেফ। চরম অপুষ্টির কারণে শিশুরা এর শিকার হয়। এটি শিশুদের খুবই রুগ্ন ও দুর্বল করে দেয়। এর ফলে শিশুদের মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ে, তাদের সঠিক বৃদ্ধি ও বিকাশ ঘটে না।

ইউনিসেফের মতে, কভিড-১৯ মহামারির আগেও ২০১৯ সালে ৪ কোটি ৭০ লাখ শিশু তীব্র রুগ্নতায় ভুগেছে। এদের ১৭ লাখই ছিল বাংলাদেশে।

জরুরি পদক্ষেপ না নিলে এবছর তীব্র রুগ্নতায় ভোগা শিশুর সংখ্যা বেড়ে প্রায় ৫ কোটি ৭০ লাখে পৌঁছাতে পারে। ইউনিসেফের মতে, বিশ্বে তীব্র রুগ্নতায় ভোগা শিশুর সংখ্যা এমন পর্যায়ে পৌঁছাতে পারে যা এই শতাব্দীতে এর আগে দেখা যায়নি। এই সমস্যা মোকাবিলায় ইউনিসেফ ২৪ কোটি ডলারের জরুরি তহবিলের আবেদন জানিয়েছে। -বিবিসি

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!