শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৬:০৩ পূর্বাহ্ন

এশিয়ান আরচারিতে প্রথম পদক পেল বাংলাদেশ

এশিয়ান আরচারি চ্যাম্পিয়নশিপে ইতিহাসের প্রথমবারের মতো কোন পদক জিতল বাংলাদেশ। বুধবার নারী তীরন্দাজদের হাত ধরে এই সাফল্য অর্জন করে বাংলাদেশ। দলীয় নারী রিকার্ভ ইভেন্টে ভিয়েতনামকে ৫-৩ সেটে হারিয়ে ব্রোঞ্জপদক এনে দিয়ে ইতিহাস গড়েন দিয়া সিদ্দিকী, বিউটি রায় ও নাসরিন আক্তার। এর কিছু সময় বাদেই ছেলেদের রিকার্ভ ইভেন্টে ব্রোঞ্জপদক এনে দিয়েছেন রোমান সানা, হাকিম আহমেদ রুবেল ও রামকৃষ্ণ সাহা জুটি। তারা কাজাখস্তানকে ৬-২ সেটে হারান।

ঢাকার বনানীর বাংলাদেশ আর্মি স্টেডিয়ামে সকালের মৃদু রোদে প্রথম দুই সেটে দারুণভাবে জয় তুলে নেন দিয়ারা। প্রথম ও দ্বিতীয় সেটে বাংলাদেশের ৫১ ও ৫৭ পয়েন্টের বিপরীতে ভিয়েতনামের স্কোর ছিল ৪৬ ও ৫২। তৃতীয় সেটে এসে হেরে যায় বাংলাদেশ, ভিয়েতনামের ৫৩ পয়েন্টের বিপরীতে বাংলাদেশ তোলে ৫২ পয়েন্ট। তবে ব্রোঞ্জপদক নির্ধারণী সেটে উভয় দল ৫৩ স্কোর তুললে ৫-৩ সেটে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত হয়। আগের দিন মিশ্র ইভেন্টে হাকিম আহমেদ রুবেলকে সঙ্গে নিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেন দিয়া।

২০০৩-২০১৯ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত আগের আট আসরে অংশ নিয়ে বাংলাদেশ কোন পদক জিততে পারেনি। নবম আসরে অবশেষে এলো পদকজয়ের চিত্তসুখ।

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশকে পদক জেতানোয় আনন্দিত দিয়া, বিউটি ও নাসরিন। দিয়া বলেন, ‘আমাদের প্রতি সবার আস্থা ছিল। আমরা অনেক খুশি যে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের মতো আসরে এই প্রথম কোন পদক জিতল বাংলাদেশ।’ বিউটি বলেন, ‘ম্যাচের আগে অনুশীলনের সময় আমার চেস্ট গার্ডে সমস্যা হচ্ছিল। তখন কোচ মার্টিন ফ্রেডারিক আমাকে অভয় জোগান এবং চেস্ট গার্ড পরিবর্তন করতে বলেন। এতে তীর ছুড়ে সফল হই।’ নাসরিন বলেন, ‘আমরা এক বছর টানা অনুশীলন করেছি, কোন ছুটিতে ছিলাম না। শুধু ম্যাচ আর অনুশীলনে নজর দেয়ায় এখানে তিনজনই ভাল করতে পেরেছি।’

বুধবার নারী তীরন্দাজদের পদাঙ্ক অনুসরণ করে একই ইভেন্টে তাম্রপদক জয় করে পুরুষ তীরন্দাজ দলও। এই আসরে এটা তাদেরও প্রথম কোন পদক জয়। প্রথম সেটে বাংলাদেশ স্কোর করে ৫৪, বিপরীতে কাজাখ দল করে ৫১ পয়েন্ট। এরপরের সেটে ৫৬-৫৩ পয়েন্টে জেতে লাল-সবুজরা। তবে তৃতীয় সেটে বাংলাদেশ হারে ৫৭-৫৫ পয়েন্টে। কিন্তু চতুর্থ সেটে ৫৭-৫৪ স্কোরে জিতে ব্রোঞ্জপদক নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

পদক জিতে রোমান সানা বলেন, ‘এ বছর আমরা অনেক টুর্নামেন্ট খেলেছি, এজন্য আমাদের আত্মবিশ্বাস আগের থেকে অনেক বেশি। যত ম্যাচ খেলব, তত আত্মবিশ্বাস বাড়বে। ফাইনাল স্টেজে খেলার সময় আমাদের নার্ভাসনেসটা অনেক কমে গেছে। এ রকম আরও ম্যাচ খেলতে পারলে ভারত, কোরিয়া, চীনের মতো আত্মবিশ্বাস হবে এবং আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টগুলোতে পদক জিতে আসতে পারব।’

কোচ মার্টিন আসার পর থেকেই তীরন্দাজদের আত্মবিশ্বাস বেড়েছে বলে মনে করেন রোমান, ‘আমরা দিন দিন উন্নতি করছি, আমাদের প্রতিটা খেলোয়াড়ের পরিকল্পনা থাকে কোন প্রতিযোগিতায় ম্যাচ খেলে একটা পদক অর্জন করা। তবে আমরা হয়তো কোরিয়া বা ভারতের মতো সেভাবে শক্তিশালী হতে পারিনি। মার্টিন ফেডেরিক আসার পর থেকেই আমরা আরও আত্মবিশ্বাসী হয়েছি, কারণ আমরা অনেক টুর্নামেন্ট খেলছি। আমি বলেছিলাম যে, পদক জেতার জন্য এবার আমাদের সবচেয়ে বড় সুযোগ রয়েছে। আমরা সেই স্বপ্নটা পূরণ করতে পেরেছি এবং লক্ষ্য পূরণ করতে পেরেছি।’

0
1
fb-share-icon1


© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!