সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৫৮ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

কাশীনাথপুরে রাজাকারের ছেলের হাতে নৌকা প্রতীক! ভোটাররা দ্বিধায়

নৌকা প্রতীক

image_pdfimage_print
নৌকা প্রতীক

নৌকা প্রতীক

সালাহউদ্দিন আহমেদ : পাবনার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইউনিয়ন কাশীনাথপুরে নৌকা প্রতীকপ্রাপ্ত প্রার্থী মীর মনজুর এলাহীকে নিয়ে বিতর্ক ওঠায় ভোটাররা দ্বিধায় পড়েছেন। তার জনপ্রিয়তায়ও এবার ভাটা নেমেছে। ফলে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনে পরাজয়ের মত এবারও তার পরাজয়ের স্বাদ নিতে হতে পারে বলে অনেকের ধারণা। সেক্ষেত্রে সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছেন আ’লীগের বিদ্রোহী তথা স্বতন্ত্র প্রার্থী আলম মোল্লা।

কাশীনাথপুরের সাধারণ ভোটাররা জানান, বিতর্কিত কোন ব্যক্তিকে তারা ভোট দিতে চান না। তারা জানান, চেয়ারম্যানের পরিবারের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে স্থানীয় বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় যেসব অভিযোগ উত্থাপিত হয়েছে তা খণ্ডন কিম্বা বানোয়াট প্রমাণিত হয়নি। তাই তিনি নৌকা প্রতীকে দাঁড়ালেও নৌকা মার্কায় আশানুরূপ ভোট পাবেন বলে মনে হয় না।

স্থানীয় কয়েকজন আ’লীগ নেতা জানান, মীর মনজুর এলাহীর অবস্থা ‘বাঘের ঘরে ঘোঘের বাসা’র মত। কারণ তিনি আ’লীগ করেন আর তারা বাবা ছিলেন দেশ বিরোধী, রাজাকার। পত্র-পত্রিকায় তার বাবার দেশ বিরোধী ভূমিকার কথা উঠে এসেছে। আ’লীগ নেতারা আরও জানান, তাদের ব্যাপক আপত্তির মুখেও তাকে নৌকা প্রতীক দেয়ায় বিতর্ক আরও বেড়েছে। ফলে মীর মনজুর এলাহীর নৌকা প্রতীকে ব্যাপক ভোট পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। তারা আরও জানান, সাধারণ ভোটাররা যেহেতু আ’লীগের অন্য একজন নেতা আলম মোল্লাকে বিকল্প হিসেবে পাচ্ছেন তাই ভোট সে দিকে গড়ার সম্ভাবনা বেশি।

কাশীনাথপুরের একজন প্রবীণ আ’লীগ কর্মী বলেন, মীর মনজুর এলাহী বর্তমানে কাশীনাথপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ও নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান। এতদিন পর অনেক সত্য বের হয়ে আসায় তিনি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি পড়েছেন। কিন্তু সে চ্যালেঞ্জ তিনি কাটাতে পারেননি। তার মরহুম বাবাকে নিয়ে যে বিতর্ক সে বিতর্ক খণ্ডাতে পারেননি। তিনি জানান, এসব অভিযোগ আর কিছুদিন আগে উঠলে হয়ত নৌকা প্রতীক তার কপালে জুটত না। আগামীতে তিনি নৌকা পাবেন বলেও মনে হয় না বলে ওই নেতা জানান।

কাশীনাথপুরের সাধারণ জনগণ জানান, তিনি আসলে সাধারণ মানুষ থেকে বিচ্ছিন্ন। তিনি সাধারণ মানুষের সাথে মেশেন না বা কাজ করেন না। তিনি তার ব্যবসা-বাণিজ্য নিয়েই ব্যস্ত থাকেন। এসব কারণেও লোকজন তার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন বলে সাধারণ জনগণ জানান।
ফোনে যোগাযোগ করা হলে মীর মনজুর এলাহী বলেন, আমার বাবা জামায়াত করলে কি ছেলে আওয়ামীলীগ করতে পারে না?

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!