খানাখন্দে ভরা দাশুড়িয়া ট্র্যাফিক মোড়

খানাখন্দে ভরা দাশুড়িয়া ট্র্যাফিক মোড়

খানাখন্দে ভরা দাশুড়িয়া ট্র্যাফিক মোড়

ঈশ্বরদী প্রতিনিধি: রাস্তা ভেঙে দাশুড়িয়া ট্রাফিক মোড় এখন মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা।

ঈশ্বরদী-ঢাকা, কুষ্টিয়া, যশোর, খুলনাসহ দক্ষিণাঞ্চল ও নাটোর, রাজশাহী ও বগুড়াসহ উত্তরাঞ্চলের যানবাহন চলাচলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ মোড় দাশুড়িয়া ট্র্যাফিক মোড়। গুরুত্ব বিবেচনায় এই মোড়ের সড়কগুলোর উন্নয়ন কাজ যথাযথভাবে হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

শীতকালে এই মোড়ের সড়কগুলো ভাল থাকলেও বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই খানাখন্দে সড়ক পরিণত হয় মরণফাঁদে। প্রতি বছর বর্ষার সময় একাধিবার এই সড়ক মেরামত করা হলেও তা এক মাসের বেশি স্থায়ী হয় না।

ভারী ও অতিরিক্ত যানবাহন চলাচলের ফলে এই মোড়ের সড়ক দ্রুত খানাখন্দে পরিণত হয়। বর্তমানে সড়কে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে তা মরণফাঁদে পরিণত হয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, ট্রাফিক মোড় থেকে প্রায় ১০০ গজ সড়ক পথের চারদিক জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে গর্ত। ইট দিয়ে মেরামত করায় এখন সে ইটগুলো বের হয়ে গেছে।

পানি জমে সড়কের বেহাল অবস্থা হয়েছে। গর্তের কারণে যানবাহনগুলো ধীর গতিতে চলছে এবং গতিপথ পরিবর্তন করায় সৃষ্টি হচ্ছে তীব্র যানজট।

ট্রাফিক মোড়ের মৎস্য ব্যবসায়ী বাবু সওদাগর জানান, গর্তের কারণে যানবাহন চলাচলে সমস্যা হচ্ছে। প্রতিদিন মাল বোঝাই ট্রাক ও যাত্রীবাহী বাস ঝুঁকির মধ্য দিয়ে চলাচল করছে।

কয়েকটি ট্রাক ও ট্রলি উল্টে যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। এছাড়া রাতে চলাচলকারী অনেক গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গর্তে পড়ে আটকে থাকছে।

দাশুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বকুল সরদার জানান, রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। অতি গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি মেরামতের জন্য পাবনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীকে অনুরোধ করেছি। তিনি কথা দিয়েছেন অল্প সময়ের মধ্যেই রাস্তাটি মেরামতের উদ্যোগ নিবেন।

পাবনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোফাজ্জল হায়দার জানান, সড়কটি অতি গুরুত্বপূর্ণ। এটি একাধিকবার মেরামত করা হয়েছে।

কিন্তু সড়কে বৃষ্টির পানি জমে থাকার কারণে তা দ্রুত খানাখন্দে পরিণত হচ্ছে। সড়কটি আবারো মেরামতের জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। কম সময়ের মধ্যেই মেরামত কাজ শুরু হবে।

তিনি আরো জানান, ভারী ও অতিরিক্ত যানবাহন চলাচলের জন্য ট্রাফিক মোড়ের আশপাশে সড়ক ঢালাই করা প্রয়োজন। এতে সড়ক দীর্ঘস্থায়ী হবে। তিনি এ বিষয়টি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং ভূমিমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করবেন বলে জানান।