চাউল গম সংগ্রহে শুধু কাগজ বেচা কেনা চলবে না: ভূমিমন্ত্রী

dilu-p-620x413ঈশ্বরদী প্রতিনিধি :  ভাষাসৈনিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা, ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এম.পি. বলেছেন, বিগত সময়ে চাউল, গম প্রকিউরমেন্টে শুধু কাগজ বেচা কেনা হতো। গোডাউন খালি করতে হবে। শুধু কাগজ বেচা কেনা চলবে না।

শনিবার সকালে ঈশ্বরদী শেরশাহ রোডে মন্ত্রীর বাসভবনের আঙ্গিনায় সুধী সমাবেশে মতবিনিময়কালে দৈনিক সমকাল পত্রিকার ঈশ্বরদী প্রতিনিধি সাংবাদিক সেলিম সরদারের প্রশ্নের জবাবে ভূমিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী শরীফ বলেন, কৃষকের কার্ডে গম জমা হবে এবং তা কৃষকের একাউন্টে সেই গমের মূল্য পৌঁছে যাবে। সিন্ডিকেট বাণিজ্য চিরতরে বন্ধ হবে। চলতি বছরের মে’র ৩১ তারিখ পর্যন্ত গম প্রকিউরমেন্ট চলবে। তিনি প্রকৃত কৃষকরে কাছে গমের মূল্য পরিশোধে সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক থাকার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, দুর্নীতিকে প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার জিরো টলারেন্স ঘোষণা দিয়েছে। দরিদ্রদের জন্য সরকারের দেওয়া অনুদান কেউ মেরে খেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সরকার গমের বর্তমান বাজার দরের চেয়েও বেশি দর দিয়ে সাধারণ কৃষকের কাছ থেকে গম কিনছে। মন্ত্রী জোর দিয়ে বলেন, সিন্ডিকেট বাণিজ্য চলবে না, চলতে দেয়া হবে না। মন্ত্রী বলেন, ঘুষ, দুর্নীতি বন্ধ করতেই সরকার সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে গম কিনে নিচ্ছে। স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে স্বাধীনতা বিরোধী, গণতন্ত্র বিরোধী, আইনের শাসন বিরোধী অপশক্তি দলের নেতারা একসময় গাড়িতে পতাকা উড়িয়ে ঘুরে বেড়িয়েছে। মানুষ হত্যা, ধর্ষণ ও দেশদ্রোহী এসব বিশ্বাসঘাতকদের অপরাধের শাস্তি আইনসঙ্গতভাবেই হবে।

ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাকিল মাহমুদ, ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান মখলেছুর রহমান মিন্টু, ঈশ্বরদী থানা অফিসার ইনচার্জ বিমান কুমার দাস, ঈশ্বরদী আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিসুন্নবী, পাবনা জেলা জজ কোর্টের পিপি এডভোকেট আখতারুজ্জামান মুক্তা, ঈশ্বরদী খাদ্য গুদামের সংরক্ষণ ও চলাচল কর্মকর্তা মো. বোরহান উদ্দিন, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বশীর আহমেদ বকুল, ঈশ্বরদী থানা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক গোলজার হোসেন, ঈশ্বরদী থানা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জুলমত হোসেন, ঈশ্বরদী আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ সাদেক আলী বিশ্বাস, আতিয়ার রহমান ভোলা, আকাল সরদার, সাঁড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জার্জিস হোসেন প্রমুখ এসময় উপস্থিত ছিলেন।