শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০৯:০১ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

চাটমোহরে ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ আতংকিত ভোটাররাও!

image_pdfimage_print

up-elec-Chatmohor20160331055614জাহাঙ্গীর আলম, চাটমোহর (পাবনা) : পাবনার চাটমোহর উপজেলায় আগামী ৪ জুন ৬টি ইউনিয়নে নির্বাচন উপলক্ষ্যে সরগরম হয়ে উঠেছে। চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ও সাধারণ মেম্বার প্রার্থীদের মধ্যে ইতিমধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

৬টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২৩ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৬৫ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ২১৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ছাইকোলা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী সাইফুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

প্রার্থীরা হলেন, হান্ডিয়াল ইউনিয়নে মোঃ রবিউল করিম (নৌকা), মোঃ সোহেল রানা (ধানের শীষ), ছহির উদ্দিন স্বপন (আনারস), মোঃ জাকির হোসেন (ঘোড়া) ও মোঃ গোলবার হোসেন (চশমা)। বিলচলন ইউনিয়নে মোঃ আবুল কালাম আজাদ (নৌকা), মোহাম্মদ আলী (ধানের শীষ), মোঃ আকতার হোসেন (চশমা), মোঃ সাইদুল ইসলাম (আনারস) ও বুলবুলি খাতুন (ঘোড়া)।

ছাইকোলা ইউনিয়নে মোঃ নজরুল ইসলাম (নৌকা), স.ম আতাউর রহমান তোতা (ধানের শীষ), বোরহান উদ্দিন সরকার (ঘোড়া) ও মোঃ জহুরুল ইসলাম (আনারস)। হরিপুর ইউনিয়নে মোঃ মকবুল হোসেন (নৌকা), মোঃ সিরাজুল ইসলাম (ধানের শীষ) ও আবুল কাশেম সরদার (আনারস)। নিমাইচড়া ইউনিয়নে প্রকৌশলী কামরুজ্জামান খোকন (নৌকা), আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ ওরফে আল মামুন (ধানের শীষ) ও মোঃ আক্কাস আলী (আনারস)। গুনাইগাছা ইউনিয়নে মোঃ নুরুল ইসলাম (নৌকা), মোঃ গোলাম মওলা (ধানের শীষ) ও মোঃ রজব আলী বাবলু (আনারস)।

নির্বাচনে প্রচারণায় শুরু হয়েছে মাইকিং। নির্বাচনী আচরণবিধি লংঘন করে চলছে মোটর সাইকেল শো-ডাউন ও মিছিল। নির্বাচনী আচরণবিধির ধার ধারছেন না অনেকে। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই প্রার্থীরা নাওয়া-খাওয়া ছেড়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন। ভোর থেকে মাঝ রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে প্রার্থীরা ভোট প্রার্থনার সাথে দিচ্ছেন বিভিন্ন উন্নয়নের প্রতিশ্র“তিও। অবাধে খরচ করা হচ্ছে টাকা। গত কয়েক দিন আগেও যেসব প্রার্থীদের সকাল দশটার আগে ঘুম ভাঙতো না।

আজ সে সব প্রার্থীদের ডাকে ঘুম ভাঙছে ভোটারদের। ভোট প্রার্থনার প্রতিযোগিতায় কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছেন তারা। রাস্তা-ঘাট, অলি-গলি ছেয়ে গেছে পোস্টারে। চায়ের দোকানগুলোতে চলছে মাঝ রাত পর্যন্ত প্রার্থীদের নিয়ে নানা গুঞ্জন।

বিশেষ করে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা আদাজল খেয়ে মাঠে নেমেছেন। ভোটাররা বিগত দিনে নাগরিক সেবা নিয়েও হিসেব-নিকেশ মিলাচ্ছেন। ইতোমধ্যে নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনাও ঘটেছে। আহত হয়েছেন এক চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ অন্ততঃ ১০ জন। মারপিট করার পাশাপাশি দোকানপাট ভাংচুর করা হয়েছে। হুমকি-ধামকি চলছে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীদের পক্ষ থেকে-এমন অভিযোগ উঠেছে। এতে করে স্বতন্ত্র প্রার্থীসহ আতংকিত ভোটাররাও।

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, নির্বাচনের প্রস্তুতি খুবই ভালো। আমরা একটি নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন উপহার দিতে পারবো বলে শতভাগ আশাবাদী।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!