বুধবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৩৭ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

চাটমোহরে সোঁতি বাঁধ অপসারণ করলো প্রশাসন

ফাইল- ছবি

image_pdfimage_print

স্টাফ রিপোর্টার : গ্রামবাসীর দাবির মুখে পাবনার চাটমোহর উপজেলার নিমাইচড়া ইউনিয়নের গুমানী নদীর ছাওয়ালদহসহ তিন স্থানের অবৈধ সোঁতি বাঁধ অপসারণ করেছে প্রশাসন।

সোমবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ ইকতেখারুল ইসলাম অভিযান চালিয়ে এই সোঁতিবাধ অপসারণ করেন।

এ সময় পাবনা জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ আঃ রউফ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুর রহমান ও হান্ডিয়াল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রোববার দুপুরে গুমানী নদীপাড়ের বিশ্বনাথপুর গ্রামবাসী গুমানী নদীর ছাওয়ালদহে স্থাপিত সোঁতি বাঁধ অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করেন।

গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেন, গুমানী নদীর ছাওয়ালদহসহ বিভিন্ন পয়েন্টে মাছ ধরার জন্য প্রভাবশালী ব্যক্তিরা অবৈধ সোঁতিবাধ স্থাপন করেন।

সোঁতিবাধের কারণে কৃত্রিম স্রোতের সৃষ্টি হয় এবং নদীর তীরবর্তী বিশ্বনাথপুর গ্রামের বাড়ি-ঘর,জমি ভেঙে নদীগর্ভে চলে গেছে।

গ্রামবাসীরা জানান, রাজনৈতিক নেতা ও প্রভাবশালীদের ছত্রচ্ছায়ায় নদী দখল করে এই সোঁতিবাঁধ স্থাপন করা হয় এবং কৃত্রিম স্রোতের সৃষ্টি হওয়ায় নদী তীরের বাড়ি-ঘরে ভাঙন শুরু হয়।

একই সাথে বিলের পানি নিষ্কাশনে বাধার সৃষ্টি হওয়ায় রবি মৌসুমের আবাদ ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। তারা অবিলম্বে সোঁতি বাঁধ অপসারণের দাবি জানান।

স্থানীয় সাংবাদিকরা বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে অবগত করালে সোমবার দুপুরে এই অভিযান চালানো হয়।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান জানান, অবৈধ সোঁতি বাঁধ অপসারণের সময় নদী ভাঙনের শিকার ক্ষতিগ্রস্ত বিশ্বনাথপুরের লোকজন স্বেচ্ছায় এসে সোঁতি অপসারণে সহযোগিতা করেন।

তিনি জানান, গুমানী নদীর তিনটি সোঁতিবাঁধ অপসারণ করা হয়েছে। অন্যান্য সোঁতিবাঁধও অপসারণ করা হবে। ইতোপূর্বে আরো ৫টি সোঁতিবাঁধ অপসারণ করা হয়।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!