চাটমোহরে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

kill_3_307429445-230x150চাটমোহর প্রতিনিধি: চাটমোহরে রাহেলা খাতুন (৩০) নামে এক গৃহবধূকে তার স্বামী পিটিয়ে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল বুধবার (২৪ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার ফৈলজানা ইউনিয়নের নেংড়ী কৃষ্ণরামপুর গ্রাম থেকে তার মরদেহটি উদ্ধার করে শরৎগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ।

রাহেলা ওই গ্রামের রতন আলীর স্ত্রী ও একই ইউনিয়নের পবাখালী গ্রামের মৃত লালন হোসেনের মেয়ে। ঘটনার পর থেকেই রতন ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করে জানান, প্রায় তিন বছর আগে রতনের সাথে বিয়ে হয় রাহেলার। বিয়ের পর থেকেই তার শ্বশুড় বাড়ির লোকজন তাকে নির্যাতন করতো। এর আগেও রতন একটি বিয়ে করেছিলো। সে ঘরের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

রাহেলার স্বজনরা দাবি করে বলেন, গতকাল বুধবার সকালে রাহেলার সাথে পারিবারিক বিষয় নিয়ে রতনের কথাকাটাকাটি হয় এবং এক পর্যায়ে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে রতন। পরে খবর পেয়ে সেখানে গেলে তারা বলে রাহেলা গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে শরৎগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই শামসুল হক জানান, আত্মহত্যার খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৮টার দিকে লাশ উদ্ধার করে সুরতহালের জন্য পাবনা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

লাশের শরীরে সিগারেটের ছ্যাকাসহ আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এছাড়া গলায় কোন ফাঁসের দাগ পাওয়া যায়নি। ঘটনার পর থেকে রাহেলার শ্বশুড় বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছে। এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, বিয়ের পর থেকে রাহেলাকে নির্যাতন করা হতো।

এ ব্যাপারে থানার ওসি (তদন্ত) মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়া পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।