মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৬ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

চাটমোহরে ২৬ মাস ধরে বেতন থেকে বঞ্চিত এক শিক্ষক!

image_pdfimage_print
চাটমোহরে ২৬ মাস ধরে বেতন থেকে বঞ্চিত এক শিক্ষক!

চাটমোহরে ২৬ মাস ধরে বেতন থেকে বঞ্চিত এক শিক্ষক!

চাটমোহর প্রতিনিধি : গত ২৬ মাস ধরে সরকারি অংশের বেতনভাতা পাচ্ছেন না পাবনার চাটমোহর উপজেলার মুলগ্রাম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আখেজ উদ্দিন। দীর্ঘদিন বেতনভাতা না পেয়ে পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তিনি। আমলাতান্ত্রিকতা জটিলতা ও তদন্তের নামে দীর্ঘসূত্রিতাই এর জন্য দায়ী বলে মনে করেন ভুক্তভোগী শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকরা।

চাটমোহর উপজেলার মহেলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষকের পদে ইস্তফা দিয়ে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন মুলগ্রাম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে।

যোগদানের পর তার বেতনের এমপিওভুক্ত প্রক্রিয়াধীনকালীন বিদ্যালয়ের জনৈক শিক্ষক মহাপরিচালক বরাবর একটি অভিযোগ দেন যে, বিদ্যালয়টিতে প্রধান শিক্ষক নিয়োগ দেয়া যাবেনা, অধ্যক্ষ নিয়োগ দিতে হবে। এর প্রেক্ষিতে মহাপরিচালক বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেন রাজশাহীর আঞ্চলিক-উপ পরিচালককে।

প্রায় দুবছর ধরে চলা সেই তদন্ত শেষ হয়নি আজও, বেতন ভাতাও মেলেনি!

ভুক্তভোগী প্রধান শিক্ষক আখেজ উদ্দিন বলেন, ‘বিদ্যালয়ে যোগদানের পর থেকে নিজের শ্রম-মেধা দিয়ে যাচ্ছি। এতদিন ধরে বেতনভাতা না পেলেও আমার দায়িত্ব পালনে কোনো গাফিলতি নেই। কিন্তু এভাবে আর কতদিন? আমারও তো পরিবার-স্ত্রী-সন্তান আছে। আমি বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার জানিয়ে কোনো ফল পাচ্ছিনা। চাই দ্রুত তদন্ত শেষ করে আমার বকেয়া বেতনভাতা পরিশোধসহ নিয়মিত করা হোক।’

বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক আতাউর রহমান রানা বলেন, ‘২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর থেকে  মাসিক বেতন পাওয়া থেকে বঞ্চিত আছেন প্রধান শিক্ষক। স্কুলের দ্বায়িত্ব তিনি যথাযথ পালন করছেন। তিনি কি বাতাস ও পানি সেবন করে জীবন নির্বাহ করবেন? পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তি হিসেবে স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণ-পোষণ করবেন কিভাবে-এ প্রশ্ন আমাদের ?’

প্রধান শিক্ষক আখেজ উদ্দিনের ক্লাসমেট ও ওই বিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র বর্তমানে নওগাঁর পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক বলেন, ‘শিক্ষা বিভাগ কি জবাবদীহিতার ঊর্ধ্বে ? একটি তদন্ত রির্পোট কি করে ২ বছর ধরেও নিষ্পত্তি হয়না? এজন্য বিদ্যালয়ের দুয়েকজন শিক্ষকের হটকারিতা দায়ী। তাদের এই ধরনের আত্মঘাতি মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। স্থানীয় সংসদ সদস্যকে নিয়ে শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলা জরুরি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং অতিরিক্ত সচিবের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টির সুরাহা করার চেষ্টা করবো।

এদিকে প্রতিষ্ঠানের লেখাপড়ার মান দিন দিন নিম্নমুখি হচ্ছে। এলাকার সচেতন অভিভাবকরা তাদের সন্তানের লেখাপড়ার ও ভবিষৎ নিয়ে শঙ্কিত।

ভুক্তভোগী প্রধান শিক্ষক, অন্যান্য শিক্ষকমণ্ডলী এবং এলাকাবাসী বিবেক ও মানববিকতার তাড়নায় এ সমস্যা নিরসনের জন্য শিক্ষামন্ত্রীসহ সরকারের সংশ্লিষ্টদের অবিলম্বে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন।


পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

পাবনার ২৫০ বছরের পুরনো জামে মসজিদ

Posted by News Pabna on Saturday, October 10, 2020

লালন শাহ সেতু

লালন শাহ সেতু

লালন শাহ সেতু

Posted by News Pabna on Tuesday, October 6, 2020

© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!