বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ১১:২৭ অপরাহ্ন

করোনার সবশেষ
করোনা ভাইরাসে বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৯৫ জন, শনাক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২৮০ জন। আসুন আমরা সবাই আরও সাবধান হই, মাস্ক পরিধান করি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখি।  

চাটমোহর-বড়াল ব্রিজসহ ২৬টি মডেল স্টেশনের পরিকল্পনা

বার্তাকক্ষ : শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে দিনাজপুরসহ পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের ২৬টি স্টেশনকে ‘মডেল’ হিসেবে আধুনিকায়নের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা তথা বাসসের এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ১৫১ কোটি ৭২ লাখ টাকা ব্যয়ে স্টেশনগুলোকে আধুনিকায়ন করা হবে। মে মাসেই টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষে কাজ শুরু হবে। চলতি বছর ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসের আগেই সব কাজ শেষ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

এই ২৬টি স্টেশন হলো দিনাজপুর, বিরামপুর, পার্বতীপুর, জয়পুরহাট, নাটোর, সাস্তাহার, চাটমোহর, রংপুর, সৈয়দপুর, নীলফামারী, ঠাকুরগাঁও, টাঙ্গাইল, জামতৈল, উল্লাপাড়া, বড়াল ব্রিজ, ডোমার, লালমনিরহাট, গাইবান্ধা, বোনারপাড়া, বগুড়া, খুলনা, যশোর, পোড়াদহ, চুয়াডাঙ্গা ও রাজবাড়ী।

পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মিহির কান্তি গুহ জানান, মুজিববর্ষে আমরাও কিছু করতে চাই। তাই সারাদেশের ৫০টি স্টেশনকে ‘মডেল স্টেশন’ হিসেবে সাজানোর পরিকল্পনা নেওয়া হয়। এর মধ্যে ২৬টি স্টেশন পশ্চিমাঞ্চলের। তালিকা ইতিমধ্যে চূড়ান্ত করেছে প্রধান প্রকৌশলীর দপ্তর। দ্রুতই টেন্ডার আহ্বান করা হবে।

তিনি আরও জানান, স্টেশনগুলোতে প্ল্যাটফর্ম শেড বড় করার পাশাপাশি আরও উঁচু করা হবে যাতে ট্রেনে ওঠানামা করতে যাত্রীদের সুবিধা হয়।

জেলা শহরের অনেক স্টেশনেই এখন দুটি প্ল্যাটফর্ম নেই। মডেল স্টেশন করার সময় সেগুলোতে দুটি করে প্ল্যাটফর্ম নির্মাণ করা হবে। প্ল্যাটফর্মে যাওয়া-আসার জন্য ফুটওভার ব্রিজও নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া প্রতিটি স্টেশনে নারী ও পুরুষের জন্য থাকবে আলাদা শৌচাগার। যাত্রীদের বসার জন্য সুন্দর জায়গা করার পাশাপাশি সবখানেই আধুনিকতার ছোঁয়া লাগানো হবে।

রেল কর্মকর্তারা জানান, এখন স্টেশনগুলোর ভেতরে অনেক অবৈধ দোকানপাট রয়েছে। সেগুলো কিছু থাকবে না। প্রতিটি স্টেশনের সুবিধাজনক স্থানে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ ও ফুড কর্নার থাকবে। ব্রিটিশ আমলে নির্মিত স্টেশনগুলো হয়ে উঠবে আধুনিক। প্রয়োজনে আরও বাড়তি স্থাপনা তৈরি করা হবে।

পশ্চিম রেলের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, মডেল স্টেশনগুলোতে শৌচাগার নির্মাণের কাজটি করতে চায় ‘ওয়াটার এইড’ নামের একটি সংস্থা। সম্প্রতি রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত একটি কর্মশালায় এটি প্রায় চূড়ান্ত হয়েছে। সেখানে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজনও উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ওয়াটার এইড এবং রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এটি চূড়ান্ত হবার পর দ্রুত কাজ এগিয়ে নিতে চেষ্টা করছেন পশ্চিম রেলের কর্মকর্তারা। আগামী মাসেই কাজের টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ করতে চান তারা।

পশ্চিম রেলের জিএম মিহির কান্তি গুহ বলেন, যাত্রীরা যেন স্বচ্ছন্দে ট্রেনে ভ্রমণ করতে পারেন সেই পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই স্টেশনগুলো মডেল হিসেবে তৈরি করা হবে। সরকার মুজিববর্ষ আগামী বিজয় দিবস পর্যন্ত বৃদ্ধি করেছে। তার মধ্যেই সব কাজ শেষ হবে। এর একদিনও বেশি সময় দেওয়া যাবে না।

0
1
fb-share-icon1


শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের এমপি প্রিন্স

শৈশব কৈশরের দুরন্ত-দুষ্টু ছেলেটিই আজকের প্রিন্স অফ পাবনা

Posted by News Pabna on Thursday, February 18, 2021

© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!