শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১০:১১ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

চার যুবককে ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ, পুলিশের অস্বীকার

image_pdfimage_print
চার যুবককে ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ, পুলিশের অস্বীকার

চার যুবককে ধরে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ

শহর প্রতিনিধি : পাবনায় জঙ্গি সন্দেহে চার যুবককে পুলিশ ধরে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন পরিবারের সদস্যরা। তবে পুলিশ এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) রাতে ওই চার যুবককে ধরে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অভিযোগ রয়েছে।

আজ শুক্রবার (১৫ জুলাই) পাবনা শহরের পাঁচমাথা মোড়ের রহমানিয়া লাইব্রেরির মালিক মো. মফিজুর রহমান জানান, গভীর রাতে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ পরিচয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা তাঁর ছেলে পাবনা এডওয়ার্ড কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র আবুল কালাম আজাদ (২৩), রহমানিয়া লাইব্রেরির কর্মচারী আতিকুর রহমান আতিক (২৬) এবং সোহাগকে (২৭) শালগাড়িয়া এলাকা থেকে আটক করে নিয়ে যায়।

অপরদিকে পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মসজিদের পেশ ইমাম আলহাজ মাওলানা ইউনুস আলী জানান, গভীর রাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী পরিচয়ে মসজিদের মোয়াজ্জিন ক্কারী মোহাম্মদ আবদুল করিমকে (৩০) হাসপাতাল কম্পাউন্ড থেকে ধরে নিয়ে যায়।

রহমানিয়া লাইব্রেরির মালিক মো. মফিজুর রহমান আরো বলেন, ‘গতকাল ও আজ আমার ছেলে ও কর্মচারীদের আটকের ব্যাপারে থানা, পুলিশ, ডিবিসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেও কোনো সন্ধান পাইনি।

‘আমার ছেলে কোনো রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নয়। সে চাপা মসজিদে চার ওয়াক্ত এবং পাবনা জেনারেল হাসপাপতাল মসজিদে ফজরের নামাজ পড়ত। এ ছাড়া দোকান কর্মচারী আতিক সব সময় দোকানের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকত। তাদের দুজনের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা বিষয়ে কিছু জানি না’, যোগ করেন মফিজুর।

এ ব্যাপারে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হাসান বলেন, জঙ্গি সন্দেহে এসব নামের কাউকে আটকের খবর আমার জানা নেই।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!