শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

চুল কাটাতে সি‌রিয়াল!

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

image_pdfimage_print
ছবি: ইন্টারনেট থেকে

ছবি: ইন্টারনেট থেকে

নিজস্ব প্রতিনিধি:‘দাদা কয়জন আছে আর, আমার সি‌রিয়াল কখন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সেলুনের নরসুন্দরের কা‌ছে এ প্রশ্ন করছে ঈদের আগে চুল কাটাতে আসা ব্যক্তিদের।

নরসুন্দরের দোকানগুলোতে ভিড় লেগেই আছে। কোনো কোনো দোকান খোলা থাকছে গভীর রাত পর্যন্ত।

রাত পোহা‌লেই ঈদ। ঈদ উপলক্ষে পাবনা সকল উপজেলার সেলুন ও গ্রামের হাট-বাজারে নরসুন্দরদের কর্মব্যস্ততা বেড়েছে। এ সময় চুল কাটা ও গোঁফ-দাঁড়ি কাটতেও মূল্য বাড়ানো হয়েছে। এরপরও আর ঈদে নিজেকে ভালোভাবে সাজাতে ছেলেরা চুল কা‌টিয়ে, সেভ ক‌রিয়ে বিভিন্নভাবে মেকাপ করে নিচ্ছেন।

‌সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টায় টেবুনিয়া বাজা‌রের সেলুনগুলোতে দেখা গেছে ব্যাপক ভিড়। হাতের আঙুলের কাঁচির ছন্দময় শব্দে চলছে চুল ছাঁটার কাজ। বছরের বাকি সময়গুলোর তুলনায় মানুষের বে‌শি উপস্থিতির কারণে সামাল দিতে রীতিমত হিমশিম খাচ্ছেন সেলুন ওয়ালারা।

‌কেউ কেউ চুল কাটা‌তে দি‌চ্ছে সিরিয়াল। সকা‌লে চুলে কাটার সি‌রিয়াল দি‌য়ে অনেক সিরিয়াল বি‌কে‌লে বা সন্ধ্যায়। কেউ কেউ সেলু‌নে দি‌য়ে যা‌চ্ছে মোবাইল ফোন নম্বর ভিড় কম থাক‌লে ফোন ক‌রে জানা‌তে। লোকজনের ভিড় লেগেই আছে সেলু‌নে, বাচ্চারা আবদার কর‌ছে নায়কদের ম‌তো, আবার কেউ ক্রিকেটসহ বিভিন্ন তারকাদের মতো করে চুল ছেঁটে দিতে।

টেবুনিয়ার রু‌বেল মিয়া বলেন, ‘সকাল ১০টা থে‌কে চুল কাটা‌তে অপেক্ষা কর‌ছি। আরও দুইজন আছে আমার আগে।

ঈদ উপল‌ক্ষে না‌পিতরা চুল কাঁটা ও সেভ করার রেট বা‌ড়িয়ে দি‌য়ে‌ছে। চুল কাটার রেট ছিল ৩০/৪০ টাকা এখন নি‌চ্ছে ৮০ থে‌কে ১০০ টাকা। আর সেভ ছিল ২০/২৫ টাকা এখন নি‌চ্ছে ৪০/৫০ টাকা।’

টেবুনিয়া বাজা‌রের সেলুন মা‌লিক মন্টু মিয়া জানান, কাজের প্রচুর চাপ। ত‌বে চাপ থাকলেও তড়িঘড়ি করে চুল কাটার সুযোগ নেই, ভুল হলেই বিপদ। আজ যে সি‌রিয়াল র‌য়ে‌ছে তা‌তে সারারাত কাজ কর‌লেও শেষ হ‌বে না। আর বাজা‌রের ব্যবসায়ীরা রা‌তে চুল কাটা‌বে। তাই সারারাত কাজ কর‌তে হ‌বে।

0
1
fb-share-icon1

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!