টেবুনিয়াতে ডাবলুর পক্ষে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ

W-Tebunia-Pabnaপাবনা প্রতিনিধি : আসন্ন পাবনা সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তৃণমুলের ভোটে নীলনকশার বিরুদ্ধে শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় টেবুনিয়া বাজারে চেয়ারম্যান প্রার্থী খন্দকার আহমেদ শরীফ ডাবলুর পক্ষে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বিক্ষোভ মিছিলটি টেবুনিয়া বাজারের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মালিগাছা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ কার্যালয়ের সামনে এসে এক সমাবেশে মিলিত হয়।

পাবনা সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ ইমরান হোসেনের পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি, দল থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী চেয়ারম্যান প্রার্থী খন্দকার আহমেদ শরীফ ডাবলু, মালিগাছা ইউনিয়ন আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা বকুল হোসেন, যুবলীগ নেতা রোকনুজ্জামান রোকন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক শাহীনুর রহমান পলাশ, দাপুনিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম রব্বেল, পাবনা আলিয়া মাদরাসা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি হাফেজ মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান, পাবনা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার জুয়েল রানা, সরকারি অ্যাডওয়ার্ড কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতা আব্দুল আলীম, বদিউজ্জামান, নাসির উদ্দিন শিবু, মালিগাছা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি খন্দকার মোশারোফ হোসেন রুবেল প্রমুখ।

বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে আওয়ামীলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগ, যুব লীগ, ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মি ও সমর্থক উপস্থিত ছিলেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, আওয়ামীলীগ এখনও দেউলিয়া হয়ে যায়নি যে, বিএনপি থেকে হাইব্রীড প্রার্থী এনে ভোট করাতে হবে। গত ১৯ তারিখে প্রার্থী নির্ধারণে তৃণমুল ভোট গ্রহণের অনুষ্ঠানে জেলা বিএনপির সাবেক সমাজকল্যাণ সম্পাদক মালিগাছা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান উম্মাত আলীর সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী ওই অনুষ্ঠানে হামলা চালিয়ে গুলি ছোঁড়া ও বোমা ফাটিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে।

বক্তারা আরও বলেন, কয়েকবার এই উম্মাত আলী বিএনপির প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি আওয়ামী লীগের যোগদান না করেই সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের কতিপয় নেতাদের আর্থিক ভাবে ম্যানেজ করে নীলনকশার মাধ্যমে তাকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে।

বিএনপির এই হাইব্রীড প্রার্থীকে বাদ দিয়ে দলের নিবেদিত যে কোন নেতাকে প্রার্থী দেয়ার দাবী জানান বক্তারা । অন্যথায় এই নীলনকশা প্রতিহত করতে দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে তারা হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

তারা এও বলেন, যদি জেলা নেতৃবৃন্দ এই উদ্ভূত পরিস্থিতি শান্তিপূর্ণভাবে নিরসনে ব্যর্থ হন তাহলে সীড গোডাউন, টেবুনিয়া, মালিগাছা, গাছপাড়াতে অবরোধসহ বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ এপ্রিল মালিগাছা ইউনিয়নের তৃণমুল ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে দলীয় কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সভায় বিএনপি অনুসারী বর্তমান চেয়ারম্যান উম্মাত আলীকে দলীয় প্রার্থী মনোনয়নের প্রস্তুতিকালে ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়। মুর্হুতের মধ্যে হট্টগোল দেখা দেয়। গুলি ও বোমা ফাটিয়ে ত্রাসের সৃষ্টি হলে তৃণমুলের ভোট স্থগিত করে জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ চলে যান।