শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:০৩ অপরাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালার প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়নি

image_pdfimage_print

নিজস্ব প্রতিনিধি : মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসকে অবজ্ঞা করে কোন প্রাতিষ্ঠানিক কর্মসূচী পালন না করায় পাবনা সদর থানার ঐতিহ্যবাহী টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালার প্রধান শিক্ষক মো: ফজলুল হকের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে পাবনা জেলা প্রশাসন।

গত ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসের দিন নিউজ পাবনা ডটকম পত্রিকায় ‘টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়নি’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে তা পাবনা জেলা প্রশাসনের নজরে আসে। এরই ধারাবাহিকতায় তদন্ত কাজ শুরু করেছে জেলা প্রশাসন।

পাবনা’র অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সালমা খাতুনের নির্দেশক্রমে তদন্তের প্রথম ধাপে পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসের একজন কর্মকর্তা মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালায় উপস্থিত হয়ে তদন্ত কাজ শুরু করেন। এসময় তিনি অত্র স্কুলের প্রধান শিক্ষক ফজলুল হকের নিকট স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন না করার কারণ সম্পর্কে জানতে চান এবং এ সংক্রান্ত একটি খসড়া রিপোর্ট তৈরি করে জেলা শিক্ষা অফিসে ফিরে যান।

পরে ওইদিন বিকেলেই টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালার প্রধান শিক্ষক ফজলুল হক জেলা শিক্ষা অফিসে গিয়ে তদবিরের চেষ্টা চালান বলে একটি অসমর্থিত সূত্র জানিয়েছে।

পাবনা জেলার প্রত্যেকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হলেও পাবনা সদর থানার টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালায় দিবসটি পালন না হওয়ায় এক বিবৃতিতে দু:খ প্রকাশ করেছেন ও সেই সাথে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন পাবনা’র অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সালমা খাতুন। তিনি পাবনা জেলা প্রশাসন কর্তৃক পরিচালিত সিটিজেন’স ভয়েস পাবনা নামক ফেসবুক পেজে উল্লেখ করেন-

‘বিষয়টি অত্যন্ত দুঃখজনক । ২৫ শে মার্চের নির্মম পৈশাচিক গণহত্যা, একটি অস্ত্র সজ্জিত প্রশিক্ষিত বাহিনীর বিরুদ্ধে খালি হাতে বীর বাঙালির নয় মাস ব্যাপী রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে পাওয়া এই স্বাধীনতা — কারো দানে নয়। স্বাধীনতা পরবর্তী প্রজন্ম এই আত্মত্যাগের মূল্য — বীর মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তের ঋণ কিভাবে শোধ করবে ? পাবনায় মুক্তিযুদ্ধের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস রয়েছে ।

সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের নির্দেশনা রয়েছে । তবে আমরা মনে করি, এ দিবসটি আমরা আমাদের অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে উদযাপন করব । টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি জেলা শিক্ষা অফিসার পাবনা Nasir Uddin Deo.Roksana Mita

এ নির্দেশ পাওয়ার সাথে সাথেই তদন্তে নেমেছে পাবনা জেলা শিক্ষা অফিসের কর্তা ব্যক্তিরা।

উল্লেখ্য, পাবনা সদর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে কোনও কর্মসূচী গ্রহন করা হয়নি।

জানা গেছে, টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালার প্রধান শিক্ষক মো: ফজলুল হক স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জামায়াতে ইসলামীর সমর্থক হওয়ায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করেননি।

২৬ মার্চ টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালার প্রধান শিক্ষকের কক্ষে তালা ঝুলছে

২৬ মার্চ সকাল ৯টায় সরেজমিনে টেবুনিয়া ওয়াছিম পাঠশালায় গিয়ে দেখা যায়, প্রধান শিক্ষকের কক্ষে তালা ঝুলছে। স্কুলে কোন শিক্ষক-শিক্ষার্থী নেই।

তাৎক্ষনিক অত্র প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক ফজলুল হকের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি আমাদের প্রতিনিধিকে জানান, সরকারিভাবে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালনে তিনি কোন চিঠি পাননি, তাই স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন করা হয়নি।

 

Best WordPress themes


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!