শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১৮ পূর্বাহ্ন

আবারও ট্রেনের টিকিট কালোবাজারিদের হাতে!

full_913701847_1407913537চাটমোহর প্রতিনিধি : পাবনার চাটমোহরে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারীরা ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছে। মাঝে কিছুদিন বন্ধ থাকলেও আবার মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে কালোবাজারিরা।

তবে তারা ট্রেনের টিকিট কালোবাজারীতে এবার ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করছে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। মাঝে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এসিল্যান্ডের ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানের কারণে কিছুদিন টিকিট কালোবাজারি বন্ধ থাকলেও আবার শুরু হয়েছে ব্যাপক হারে।

ফলে সাধারন যাত্রীদের টিকিট কিনতে হচ্ছে ২ থেকে ৩ গুন টাকা বেশি দিয়ে। আর এর প্রত্যক্ষ মদদ দিচ্ছেন রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার ও বুকিং সহকারী।

সূত্র জানায়, স্টেশন মাস্টার ও বুকিং সহকারীর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের অমৃতকুন্ডা গ্রামের মৃত হাফু প্রামানিকের ছেলে শাহাদতের নেতৃত্বে মাঝগ্রামের আশরাফুল, বাবলু, মহেশপুর গ্রামের আল হোসেন (আলাল) সহ বেশ কয়েকজন নতুন করে বিভিন্ন কৌশলে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি শুরু করেছে।

পূর্বে যারা টিকিট কালোবাজারির সাথে জড়িত ছিলো তারা উপজেলা প্রশাসন ও র‌্যাবের যৌথ অভিযানে আটকের পর বিভিন্ন মেয়াদে সাজা ভোগ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসলেও একমাত্র শাহাদত গং এই কালোবাজারির ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন রমরমাভাবে। প্রশাসনের যে কোন অভিযানে শাহাদত গং থেকেছে ধরাছোঁয়ার বাইরে।

সূত্র আরো জানায়, মোবাইল ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ করলে তার কাছে থেকে চাটমোহরের উপর দিয়ে চলা বিভিন্ন আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট মিলছে। শুধু এখানেই শেষ নয়, চাটমোহর স্টেশনের টিকিট কোন সময় ফুরিয়ে গেলে পার্শ্ববর্তী স্টেশনগুলো থেকে সেখানকার যাত্রীদের জন্য বরাদ্দকৃত টিকিও মিলছে শাহাদত গং এর কাছ থেকে।

তবে সে ক্ষেত্রে সাধারণ যাত্রীকে কয়েকগুণ বেশি দাম দিয়ে কিনতে হচ্ছে সোনার হরিণ নামক ট্রেনের টিকিট। চাহিদা বেশী হলে এসি-ননএসির টিকিটও মোটরসাইকেল যোগে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে চাটমোহরসহ পাবনার বিভিন্ন জায়গায়।

ট্রেনে ভ্রমনকারী যাত্রীরা জানান, ট্রেনের টিকিট কালোবাজারী ও ষ্টেশনের কর্মচারীরা চাটমোহর রেল ষ্টেশন থেকে টিকিট বিক্রি করে অবৈধভাবে লাভবান হচ্ছে। এখনই এদের পুরোপুরি দমন না করা গেলে আবারো পূর্বের অবস্থা ফিরে পাবে চাটমোহর রেল ষ্টেশন।

প্রসঙ্গত, টিকিট কালোবাজারি নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয় নইলে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান বন্ধ থাকে। তবে অবিলম্বে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি বন্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এসিল্যান্ডের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

0
1
fb-share-icon1


© All rights reserved 2021 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!