শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ০৫:৩৯ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

ডায়াবেটিসজনিত অন্ধত্বের ঝুঁকিতে ২৫ লাখ মানুষ

ডায়াবেটিসজনিত অন্ধত্বের ঝুঁকিতে রয়েছেন দেশের ২৫ লাখ মানুষ। অথচ আক্রান্ত বেশির ভাগই জানেন না, ডায়াবেটিস চিরতরে কেড়ে নিতে পারে দৃষ্টিশক্তি।

নাগালের মধ্যে সেবাকেন্দ্র বৃদ্ধি, চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ ও ডায়াবেটিস আক্রান্তদের নিয়মিত চক্ষু পরীক্ষার মাধ্যমে অন্ধত্বের প্রধান ঝুঁকি কমানো সম্ভব বলে মত বিশ্লেষকদের।

ডায়াবেটিসের কারণে রেটিনাতে রক্তক্ষরণই ডায়াবেটিস রেটিনোপ্যাথি। অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিসের কারণে রক্তক্ষরণের পাশাপাশি রেটিনাতে পানি ও রক্ত জমাট বাঁধে। ফলে দৃষ্টিশক্তি কমে অন্ধত্বের দিকে এগিয়ে যায় ভুক্তভোগী।

দীর্ঘ ১৫ বছর শরীরে ডায়াবেটিস পুষে সম্পূর্ণরূপে বাঁ-চোখ এবং ডান চোখের ৮০ শতাংশ দৃষ্টি হারিয়েছেন ভুক্তভোগী জোসনা। চিকিৎসকের কাছে শরণাপন্ন হওয়ার পর জেনেছেন ডায়াবেটিস রেনিনোপ্যাথি নামক চোখের রোগে আক্রান্ত তিনি।

তিনি বলেন, বাম চোখে আমি একদমই দেখি না। ডান চোখে হাল্কা দেখি। ডায়াবেটিস হলে কিডনি বা দাঁতে সমস্যা হয়। তবে চোখে সমস্যা হয় জানতাম না।

অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিসের কারণে হৃদপিণ্ড, রক্তনালী, কিডনিসহ প্রায় সব অঙ্গই মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে ডায়াবেটিসের কারণে হারানো দৃষ্টিশক্তি কোনো চিকিৎসাতেই ফেরানো সম্ভব না বলে মত চিকিৎসকদের।

এ প্রসঙ্গে ডা. সাজ্জাদ হোসেন খন্দকার বলেন, কোনো ধরনের ব্যথা হয় না। এটা একমাত্র ডাক্তাররাই বলতে পারবেন।

আন্তর্জাতিক সংগঠন অরবিজের গবেষণা বলছে, ডায়াবেটিসে আক্রান্ত প্রায় ১ কোটি মানুষের ২৫ লাখই ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথিতে আক্রান্ত। সমস্যা সমাধানে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হলে বছরে অন্তত এক বা দুবার চক্ষু পরীক্ষার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খান বলেন, সরকার এগিয়ে এসেছে। এর প্রচারটা সবখানে ছড়িয়ে দিতে হবে।

নীরব এ অন্ধত্ব প্রতিরোধে রোগীদের পাশাপাশি কমিউনিটি ক্লিনিকের সেবাদানকারী ও চিকিৎসকদের মধ্যেও সচেতনতা বৃদ্ধির পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

error20
fb-share-icon0
Tweet 10
fb-share-icon20


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
error: Content is protected !!