সোমবার, ২৫ মে ২০২০, ১১:২৫ পূর্বাহ্ন

আতঙ্কিত হবেন না
করোনা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন

দেশের নাম উজ্জ্বল করছে পাবনার কৃতিসন্তান মেহেদী হাসান

দেশ-বিদেশে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করছে পাবনা জেলার কৃতিসন্তান হ্যান্ডবল খেলোয়াড় মো. মেহেদী হাসান। তার এই হ্যান্ডবল খেলার নেপথ্যের ঘটনা কি? কার কাছ থেকে এতো ভালো হ্যান্ডবল খেলা শিখলেন তিনি? কি কি ধরণের সমস্যা, চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে এতো দূর এসেছেন মেহেদী হাসান? শুনবো এই কৃতি খেলোয়াড়ের নিকট থেকেই-

“আমি সাধারণ একজন ছেলে। ছোট বেলা থেকে খেলাধুলার প্রতি ভীষণ নেশা ছিল। ইচ্ছা ছিল জাতীয় দলের হয়ে ফুটবল খেলবো কিন্তুু সেটা হল না।

মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে আমি এইচ এস সি পাশ করার পর চাকুরীর জন্য এখানে সেখানে যাই এর মধ্য আমার বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) তে চাকুরী হয়।

চাকুরী হলেই আমি আমার হাল ছাড়ি নাই। এই বাহিনীতে হ্যান্ডবল খেলা হয় আর এখানে এসেই আমি এই খেলাটি শিখেছি।

প্রধানমন্ত্রীর নিকট থেকে সম্মাননা পুরস্কার নিচ্ছেন মেহেদী

তো আমাদের আন্ত: বাহিনী খেলার মাধ্যমে খেলোয়ার নির্বাচন করা হয় এবং আমিও নির্বাচিত হই।

সেখানে থেকে আমাদের বিজিবি’র মূল দল ২০১৩ এর শেষের দিকে অনুশীলনের সুযোগ পাই এবং সেখান থেকেই আমি জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য ডাক পাই।

তখন থেকেই আমি সেই সুযোগ কাজে লাগানোর চেষ্টা করি।

বাংলাদেশের পতাকা হাতে মেহেদী ও অন্যান্যরা।

প্রথমবার আমি মূল দলের সাথে অনুশীলন করি কিন্তু দলে সুযোগ করে নিতে পারি নাই।

এর পর থেকে আরো বেশি মনোযোগ দিয়ে অনুশীলন করি এবং একই বছরে ২০১৪ সালে আমি দেশের হয়ে খেলার সুযোগ পাই।

অধ্যবদি এখনো খেলেই চলেছি এবং বর্তমানে জাতীয় দলের সহ-অধিনায়ক পদে থেকে দায়িত্ব পালন করছি।

খেলার একটি মুহুর্তে মেহেদী হাসান

সাফল্য বলতে গেলে ২০১৪ সালে পাকিস্তান সফরে কোন পদক অর্জন করতে পারি নাই।

২০১৫ সালেশ্রীলংকাতে একটি টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করি। একই সালে ভারতের দিল্লীতে অনুষ্ঠিত ফ্রেন্ডলি টুর্নামেন্টে রানার্স আপ হই।

একই বছরের ডিসেম্বর মাসে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত সিঙ্গাপুর ওপেন হ্যান্ডবল টুর্নামেন্টে সেমিফাইনালে তাইওয়ানের কাছে হেরে বাদ পরে যাই।

২০১৬ তে ১২ তম সাউথ এশিয়ান গেমসে্ অংশগ্রহন করি এবং সেখানে তাম্র পদক অর্জন করি।

একই সালে ২০১৬ এর অক্টোবর মাসে ‘আইএইচএফ ট্রফি টুর্নামেন্ট’ এ বাংলাদেশ জাতীয় হ্যান্ডবল দল রানার্স আপ হয়।

দল জেতার পরে আনন্দে আত্মহারা সবাই, সাথে মেহেদী

বিদেশ যাত্রা বলতে গেলে খুব বেশি না ৫ টি দেশে যাবার মত সুযোগ হয়েছে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, সিঙ্গাপুর, ও থাইল্যান্ড।

তবে ভারতে বেশ কয়েক বার যাবার মত সুযোগ হয়েছে।

এ ছাড়া দেশীয় টুর্নামেন্ট গুলোতে ৫-৬ বার চ্যাম্পিয়ন এবং ৩ বার সেরা খেলোয়ার এবং টানা ২ বছর দেশ সেরা হয়েছি।

পদক জেতার পর মেহেদী ও অন্যান্যরা

ভবিষ্যৎ তে আরো ভাল কিছু দেশকে উপহার দিতে চাই।

আমি আমার প্রিয় ঈশ্বরদী এবং পাবনাবাসীর তথা এই বাংলার সকলের কাছে আমার জন্য আমার দলের জন্য দোয়া প্রার্থনা করছি।”

নাম: মেহেদী হাসান। ফেসবুক নেম : MH Akash পিতা: মৃত আনোয়ার হোসেন, গ্রাম: বাঘইল পূর্ব পাড়া,  পোষ্ট : পাকশী, থানা: ঈশ্বরদী,  জেলা: পাবনা।

error20
fb-share-icon0
Tweet 10
fb-share-icon20


© All rights reserved 2020 ® newspabna.com

 
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
Wordpress Social Share Plugin powered by Ultimatelysocial
error: Content is protected !!